নামের ভুলে করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন ডা. রব

0
112
চমেকে পজিটিভ হওয়ার পর বিআইটিআইডিতে নেগেটিভ

নিজস্ব প্রতিবেদক:

নামের ভুলে করোনা পজিটিভ হয়েছিলেন চট্টগ্রামের অন্যতম চিকিৎসক ডা. আব্দুর রব মাসুম। চট্টগ্রামে শুরু থেকে করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিয়ে আসা এই চিকিৎসকের করোনা পজিটিভ এসেছিল চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবে। কিন’ এই রিপোর্ট নিয়ে সন্দেহ থাকায় তিনি বিআইটিআইডিতে নমুনা দেন এবং সেখানকার গতকালের রিপোর্টে তিনি নেগেটিভ হয়েছেন। এতে আজ মঙ্গলবার সকাল থেকে কাজে যোগ দিয়েছেন ডা. আবদুর রব।

আজ মঙ্গলবার সকালে সুপ্রভাতের সাথে আলাপকালে তিনি বলেন, চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজ ল্যাবের রিপোর্ট (সোমবার) নিয়ে প্রথম থেকেই আমার সন্দেহ ছিল। আর ল্যাব কর্তৃপক্ষও সন্দেহের বিষয়টি জানিয়েছিল। নামের ভুলের কারণে আরেকজনের পজিটিভ রিপোর্ট আমার নামে যুক্ত করে দেয়া হয়।’

তিনি আরো বলেন, পরবর্তীতে সোমবার সকালে বিআইটিআইডিতে নমুনা দেয়ার পর একদিনের মধ্যে রিপোর্ট দেয় কর্তৃপক্ষ। আর এতে আমার নেগেটিভ ফলাফল আসে।

শারীরিক কোনো সমস্যা রয়েছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, চার-পাঁচদিন আগে জ্বর এসে ভাল হয়ে গেছে। এখন কোনো সমস্যা নেই। একইসাথে আমার স্ত্রীও সুস্থ (করোনা পজিটিভ হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন) হওয়ার পথে রয়েছেন।

চট্টগ্রাম মেডিক্যাল কলেজে একদিন আগের রিপোর্টে করোনা পজিটিভ এবং একদিন পর বিআইটিআইডির রিপোর্টে নেগেটিভ আসার বিষয়ে জানতে চাইলে বিআইটিআইডি ল্যাব প্রদান ডা. শাকিল আহমেদ বলেন,‘ অনেক সময় একটি নমুনা থেকে আরেকটি নমুনা চার-পাঁচদিন গ্যাপ হলে দুই ধরনের রিপোর্টে দুই ধরনের ফলাফল আসতে পারে। কিন’ একদিন আগে পড়ে তো এমন হওয়ার কথা নয়।’

নামের ভুলে কি এধরনের হতে পারে? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘ হুম, এটা হতে পারে। হয়তো সেধরনের কিছু হয়েছে। আর আমরা চিকিৎসকদের স্পেশাল অনুমতি দিয়ে একদিনের নমুনা একদিনেই পরীড়্গা করার ব্যবস’া করে দেই।‘

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের করোনা চিকিৎসায় একটি  উল্লেখযোগ্য নাম ডা. আব্দুর রব মাসুম। প্রথম থেকে করোনা চিকিৎসায় একমাত্র হাসপাতাল জেনারেল হাসপাতাল। এই হাসপাতালে গত তিন মাস ধরে নিরবিচ্ছিন্ন সেবা দিয়ে যাচ্ছেন এই চিকিৎসক। এমনকি চিকিৎসা সেবা অব্যাহত রাখতে নিজের পরিবারের সদস্যদের হালিশহরে এক আত্মীয়ের বাড়িতে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন। যাতে পরিবারের কেউ আক্রানত্ম না হন। কিন’ শেষ পর্যনত্ম তার স্ত্রীও আক্রান্ত হয়েছেন।