পটিয়ায় সরকারি স্কুলের মাঠ দখলের চেষ্টা

0
91

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

পটিয়া উপজেলার শোভনদন্ডী ইউনিয়নের হিলচিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের একমাত্র মাঠ  দখল  চেষ্টার অভিযোগ পাওয়া গেছে। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি আ ন ম সেলিম উদ্দিন চৌধুরী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবরে আহমদ হোসেন ও মো. আবছারের বিরুদ্ধে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। বর্তমানে পটিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) বিষয়টি তদন্ত করছেন। এর আগে উপজেলা প্রাথমিক শিড়্গা কর্মকর্তা আবু আহমেদ প্রাথমিকভাবে তদন্ত করেন এবং স্কুলের মাঠ দখল চেষ্টার সত্যতা পান।

স্কুল কমিটি সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শোভনদন্ডী ইউনিয়নের হিলহিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রাচীন একটি বিদ্যাপীঠ। স্কুলের মাঠসহ আশপাশের ৪৭ শতক ভূমি দলিলমূলে রয়েছে। এতে স্কুল ভবন, দোকান এবং শিক্ষার্থীদের একমাত্র খেলার মাঠও রয়েছে। করোনা ভাইরাসের কারণে বর্তমানে স্কুল বন্ধ রয়েছে। এই সুযোগ নিয়ে একটি গোষ্ঠী স্কুলের খেলার মাঠে পিলার স্থাপন করেছে।

স্কুলের মাঠে খুঁটি স্থাপনের বিষয়টি জানাজানি হলে শিড়্গক, অভিভাবক ও স্থানীয় শিক্ষার্থীরা  ক্ষোভ প্রকাশ করেন। স্কুল পরিচালনা কমিটির পক্ষ থেকে ইউএনও বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। স্কুল পরিচালনা কমিটির সভাপতি আ ন ম সেলিম উদ্দিন চৌধুরী জানিয়েছেন, এলাকার কয়েকজন ব্যক্তি প্রাচীন বিদ্যাপীঠকে ধ্বংস করে দিতে উঠে পড়ে লেগেছেন। ওই চক্রের কয়েকজন ব্যক্তি খেলার মাঠে খুঁঁটি স্থাপন করেন। বিষয়টি উপজেলা প্রশাসনকে লিখিতভাবে জানানো হয়েছে। ৪৭ শতক জায়গার মধ্যে ৩০-৪০ বছর আগে আরএস রেকর্ড মালিক তমিজ উদ্দিন গং ১৩৯৮ দাগে একটি মাদ্রাসা চালু করেন। পরবর্তীতে মাদ্রাসা বিলুপ্ত করে উক্ত ভূমি হিলচিয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়কে দলিলমূলে হস্তান্তর করেন। এর পর থেকে তা স্কুলের মাঠ ও কয়েকটি দোকান নির্মাণ করে ভাড়ায় লাগিয়ত করা হয়। দখল চেষ্টার বিষয়টি পটিয়ার সংসদ সদস্য ও হুইপ সামশুল হক চৌধুরীকে স্কুল কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

পটিয়া উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আবু আহমেদ জানিয়েছেন, স্কুলের খেলার মাঠ দখল  চেষ্টার বিষয়ে স্কুল কমিটি একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। তা প্রাথমিক তদন্তে সত্যতা মিলেছে।