সন্তানদের খোঁজ নেন না জেমস!

0
169

সুপ্রভাত ডেস্ক :
নব্বইয়ের দশকে চলচ্চিত্রে অভিনয় শুরু করেন কানিজ রাবেয়া রথি। ১৯৯৩ সালে মুক্তি পায় তার অভিনীত ‘অবুঝ দুটি মন’ সিনেমা। এই ছবিই রথিকে পরিচিতি এনে দেয়। এর আগেই ১৯৯১ সালে ভালোবাসে বিয়ে করেছিলেন নগরবাউল ব্যান্ডের ভোকাল ও গিটারিস্ট ফারুক মাহফুজ আনাম জেমসকে।
২০০৩ সালে এই সংসার ভেঙে যায়। তাদের সেই সংসারে রয়েছে দুই সন্তান আবরার আলভী দানিশ ও জান্নাতুল ফেরদৌস। বর্তমানে মা রথির সঙ্গেই রাজধানীর উত্তরায় থাকেন তারা। সম্প্রতি গণমাধ্যমে রথি বলেছেন, এই দুই সন্তানের খোঁজ নেন না জেমস।
রাথির দাবি, প্রথম দিকে হঠাৎ হঠাৎ ফোন করতো, এরপর আর কোনো যোগাযোগ নেই। অনেক আগে হাই–হ্যালো হতো, এখন তো তাও নেই। ঈদের মতো উৎসবে যেমন খবর নিত না, তেমনি ছেলেমেয়েদের জন্মদিন শুভেচ্ছা পর্যন্ত জানাত না। অথচ আমি শুনেছি, ও সব জায়গায় বলে বেড়ায় সন্তানদের সবকিছু চালায়।
এক সময়ের নায়িকা রথি আরো বলেছেন, এই করোনায় সন্তানদের একটিবার খোঁজ নেয়নি। মেয়েটা কিছুদিন আগে এসএসসি পাস করেছে, ফলাফল বাবাকে হোয়াটসঅ্যাপে জানায়, এসএমএস দেখেছে, কিন্তু কোনো উত্তর দেয়নি। একটা উইশ পর্যন্ত করেনি।
জেমসের কারণেই সিনেমা ছেড়েছেন জানিয়ে রথি বলেন, নব্বইয়ের দশকে ‘আনন্দ বিচিত্রা ফটো সুন্দরী’ প্রতিযোগিতায় প্রথম রানারআপ হওয়ার পর জেমসের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক হয়। সেই সম্পর্ক বিয়েতে গড়ায়। তবে বিয়ের পর সিনেমা ‘না’ করার শর্ত জুড়ে দেন জেমস। জেমসের কথা মেনে সিনেমা ছেড়ে দেই। তিনি জানান, তবে ২০০২ সালে না জনিয়ে জেমস বেনজির সাজ্জাদকে বিয়ে করলে ২০০৩ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয় বলে দাবি কানিজ রাবেয়া রথির। ২৭ বছর আগে সিনেমা ছাড়লেও পরবর্তী সময়ে নাটক, টেলিছবি ও বিজ্ঞাপন চিত্রে কাজ করলেও গত ৯ বছর ধরে মিডিয়ার সঙ্গে যুক্ত নেই রথি।
এদিকে ২০১০ সালের শেষ দিকে সৈয়দ নজরুল ইসলাম বিপু নামের এক ব্যবসায়ীকে বিয়ে করেন রথি। কিন্তু সেই বিয়েও টেকেনি। বর্তমানে নিজের মতো করে সন্তানদের নিয়ে থাকছেন তিনি।
খবর : ডেইলিবাংলাদেশ’র।