হালদার ১১ কেজি কাতাল মাছের ঠাঁই হল চবির ল্যাবে!

0
203
হালদা নদী থেকে বড়শি দিয়ে ধরা ১১ কেজি ওজনের কাতাল মাছটি উদ্ধার করে উপজেলা প্রশাসন-সুপ্রভাত

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাটহাজারী :

প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন ক্ষেত্র হালদা নদীতে প্রশাসন কর্তৃক অভিযান পরিচালনা করার কারণে এখন নদী থেকে জাল ও ঘেরা জাল দিয়ে মাছ শিকার প্রায় কমে এসেছে। কিন’ এক শ্রেণির লোভী মানুষ এখন নদী থেকে বড়শি দিয়ে মাছ শিকার করছে।

শুক্রবার রাতে উপজেলার ছিপাতলী ইউনিয়নের হালদা নদীর অংশ থেকে বড়শি দিয়ে ১১ কেজি ওজনের একটি কাতাল মাছ ধরে এক ব্যক্তির কাছে ৬ হাজার টাকায় বিক্রি করে দিয়েছে।

এ খবর পাওয়ার পর শনিবার (১৩ জুন) বেলা সাড়ে ১২টার দিকে হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রম্নহুল আমিন ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এসময় ছিপাতলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নুরম্নল আহসান লাভুর সহায়তায় কাতালটি উদ্ধার করা হয়েছে। পরে বড়শি দিয়ে মাছ শিকার করা মো. ইউনুচ সোহেলকে আটক করা হয়। অভিযানে মুচলেখা নিয়ে তাকে ১২ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন সুপ্রভাতকে বলেন, উপঝেলার ছিপাতলী এলাকার সাবেক মেম্বার নুরম্নল হকের পুত্র মো. ইউনুচ সোহলে বড়শি দিয়ে হালদা নদী থেকে ১১ কেজি ওজনের কাতাল মাছ ধরে। মাছ ধরার পর সে মাছটি ৬ হাজার টাকা দিয়ে অন্য একজনের কাছে বিক্রি করে দেয়। খবর পাওয়ার পর ইউপি চেয়ারম্যানকে নিয়ে মাছটি উদ্ধার করা হয়।  উদ্ধার করা মাছটি চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের হালদা রিসার্চ ল্যাবে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।