সীতাকুণ্ডে করোনা উপসর্গে মারা গেলেন এসআই

0
79
 একজন ইন্সপেক্টরসহ আরো ৭ জন করোনা পজেটিভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, সীতাকুণ্ড :

সীতাকুণ্ডে করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা গেছেন মো. একরামুল ইসলাম (৪৫) নামে পুলিশের এক সাব-ইন্সপেক্টর। এসআই একরাম কুমিল্লা জেলার লাকসাম থানার অতিশপাড়া ইউনিয়নের কাঁঠালপাড়া গ্রামের মৃত শামছুল আলমের পুত্র। ১৯৯৫ সালের ২৩ ফেব্রম্নয়ারি তিনি বাংলাদেশ পুলিশে যোগদান করেন। শনিবার বেলা ১১টার দিকে  হাসপাতালে নিয়ে আসা হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার নমুনা সংগ্রহ করেছেন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপেস্নক্সের কর্মীরা।

সীতাকু- থানার ওসি (তদন্ত) শামীম শেখ জানান, থানার এসআই মো. একরাম গত ৭-৮দিন ধরে জ্বর ও শ্বাসকষ্টে ভুগছিলেন। এ কারণে সে ১ জুন থেকে ছুটিতে ছিলেন এবং ছুটি থাকাকালীন সে পৌর সদরের ভূঁইয়া টাওয়ারের ৩য় তলার ভাড়া বাসায় একা থাকতেন। শনিবার সকালে এমরান নিজের শরীর বেশি খারাপ লাগছে বলে ওসিকে জানালে  ওসি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. নুর উদ্দিনকে জানান। খবর পেয়ে ডা. নুর উদ্দিন অ্যাম্বুলেন্স পাঠিয়ে তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। সেখানে নেওয়ার পর ডাক্তাররা পরীক্ষা করে তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. নুর উদ্দিন রাশেদ জানান,  সকাল সাড়ে ১০টায় সীতাকু- থানার ওসি মো. ফিরোজ হোসেন মোলস্না তাকে ফোন করে জানান একজন সাব-ইন্সপেক্টর খুব অসুস্থ বোধ করছেন দ্রম্নত অ্যাম্বুলেন্স পাঠাতে হবে। খবর পাওয়া মাত্র তিনি ডাক্তারসহ অ্যাম্বুলেন্স পাঠিয়ে দেন। তাকে দ্রম্নত হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। এখানে পরীক্ষার পর দেখা যায় তিনি মারা গেছেন। মৃত্যুর পর তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এদিকে গশুক্রবার রাতে থানার  ওসি সুমন বণিক, থানার গাড়ি চালক তোহিদুল ইসলামসহ মোট ৮জনের করোনাভাইরাস পজেটিভ আসে।