উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে এমন করোনা রোগীদের মৃত্যু ঝুঁকি দ্বিগুণ

0
119

সুপ্রভাত ডেস্ক :

হাসপাতালে করোনাভাইরাস নিয়ে ভর্তি হওয়া রোগীদের ওপর গবেষণা চালিয়ে দেখা গেছে, সেখানে উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে এমন রোগীর মৃত্যুর সংখ্যা অন্যান্য রোগীর দ্বিগুণ। আবার যে সব উচ্চরক্ত চাপ সম্পন্ন রোগী ওষুধ খাওয়া ছেড়ে দিয়েছে, তাদের মৃত্যু ঝুঁকি তারও দ্বিগুণ। শুক্রবার এক গবেষণা তথ্যে এ কথা বলা হয়।
ইউরোপীয়ান হার্ট জার্নালের এক খবরে বিশেষজ্ঞরা এ কথা জানান। খবর এএফপি’র।
চীনের জিয়ান-এর শিজিং হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের প্রধান ও কার্ডিওওলাজিস্ট ফি লী জানান,‘এটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ যে,উচ্চ রক্তচাপ রোগীদের বুঝতে হবে তাদের কোভিড-১৯-এ মৃত্যু ঝুকি অনেক বেশি।’

চীন এবং আয়ারল্যান্ডের বিশেষজ্ঞরা ৫ই ফেব্রুয়ারি থেকে ১৫ মার্চ পর্যন্ত উহানের হোশেনশান হাসপাতালের ২,০২৭ জন রোগীর ওপর গবেষণা চালিয়ে দেখেছেন, হাসপাতালের ভাইরাস আক্রান্ত শতকরা ৩০ ভাগ, ৮৫০ জন রোগীর হাইপার টেনশন বা উচ্চ রক্তচাপ রয়েছে। উচ্চ রক্তচাপের এসব রোগীর মধ্যে শতকরা চার ভাগের মৃত্যু হয়েছে। যাদের উচ্চ রক্তচাপ নেই তাদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে শতকরা ১ ভাগের। একই হাসপাতালের কোভিড-১৯ আক্রান্ত ২,৩০০ রোগীর ওপর পৃথক আরেকটি মেটা এনালিসিস চালান বিশেষজ্ঞরা। তারা উচ্চ রক্তচাপের বিভিন্ন ওষুধ সেবনকারিদের ওষুধের প্রভাব ও তাতে মৃত্যুর হারও গবেষণা করে দেখেন।
তারা দেখেছেন রাস ইনহিবিটরস নামে একটি ওষুধ যাতে এনজিওটেনটিং-কনভারটিং এনজাইম ইনহিবিটর (এসিই) ও এজিওটেনসিন রিসেপটর ব্লকার (ৃএআরবি) রয়েছে। বিশেষজ্ঞরা আশা করছেন যে এই ওষুধ সেবনকারিরা কোভিড-১৯ মৃত্যুর ঝুঁকিতে নেই।
শিজিং হাসপাতালের অধ্যাপক লিং টাও বলেন, ‘আমরা নির্দেশনা দেব যে, যেসব রোগী হাইপারটেনশনের ওষুধ সেবন করেন তারা যেনো চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ পরিবর্তন বা ওষুধ সেবন থেকে বিরত না থাকবেন।’