আইসিইউসহ প্রস্তুত হচ্ছে বন্দর হাসপাতাল

0
141
করোনার চিকিৎসায় হাসপাতাল প্রস্তুত করছে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ- সুপ্রভাত

নিজস্ব প্রতিবেদক :
সামাজিক সংক্রমণ বৃদ্ধির কারণে ঝুঁকিতে পড়েছে দেশের অর্থনীতির হৃদপি- খ্যাত চট্টগ্রাম বন্দর ও কাস্টমস। কারণ এই দুটি সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রতিনিয়ত কাজ করছেন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি নিয়ে। তাই তাদের জন্য চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ প্রস্তুত করেছে সেন্ট্রাল অক্সিজেন সাপোর্টসহ ৫০ শয্যার আইসোলেশন সেন্টার। পাশাপাশি আরো বড় ঝুঁকির কথা ভেবে প্রস্তুত করছে আইসিইউ শয্যা।
জানতে চাইলে চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের সদস্য (প্রশাসন) জাফর আলম বলেন, ‘আমরা আগে থেকে বন্দর হাসপাতালে অক্সিজেন সাপোর্টসহ ৫০ বেডের আইসোলেশন প্রস্তুত করে রেখেছিলাম। এখন আইসিইউ স্থাপনের পরিকল্পনা করেছি। ইতোমধ্যে আমাদের ইঞ্জিনিয়ার হাসপাতালটি পরিদর্শন করেছেন। আমরা অল্প সময়ে মধ্যে ৫ থেকে ৮ শয্যার আইসিইউ প্রস্তুত করবো।’
তিনি আরো বলেন, ‘বন্দরের কর্মকর্তা ও কর্মচারী ও তাদের পরিবার মিলে প্রায় ৪০ হাজার মানুষ হাসপাতালে সেবার আওতায় থাকবে। এর বাইরে স্থানীয় জনগণকে হাসপাতালে সেবা দেওয়া যায় কিনা তা নিয়ে বন্দর কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেবে। লোকবল সংকট নিয়ে একটা সমস্যা আছে। অল্প সময়ের মধ্যে আমরা এই সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করছি।’
মঙ্গলবার হাসপাতালটি পরিদর্শন করেন চট্টগ্রাম ফিল্ড হাসপাতালের উদ্যোক্তা ডা. বিদ্যুৎ বড়–য়া। তার কাছে জানতে চাওয়া হয় হাসপাতালটি সম্পর্কে। তিনি বলেন, ‘হাসপাতালটি চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষ পরিচালনা করবেন। আমি সেখানেও কাজ করতে পারি। তারা আমাকে আমার টিমসহ কাজ করার প্রস্তাব দিয়েছেন। সবকিছু যদি ঠিকঠাক হয়, তাহলে বন্দর হাসপাতাল ফিল্ড হাসপাতালের মত করে প্রস্তুত করব। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার বন্দর কর্তৃপক্ষের সাথে আবার কথা হবে। তারপর বিস্তারিত বলা যাবে।’
চট্টগ্রাম বন্দর ও কাস্টমসের তথ্যমতে, সোমবার পর্যন্ত সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী দুই সংস্থায় কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছে ৫৬ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী। এর মধ্যে বন্দরের ৩৯ জন ও কাস্টমসের ১৭ জন কর্মকর্তা ও কর্মচারী আক্রান্ত হয়েছেন। তারমধ্যে বন্দরের চারজন মৃত্যুবরণ করেছেন।