ঝুলে রইলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ভাগ্য

0
82

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক :
যথাসময়ে কী অনুষ্ঠিত হবে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। চেয়ারম্যান হিসেবে শশাঙ্ক মনোহরের মেয়াদকাল কী দু’মাস বর্ধিত করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে। এমনই নানা প্রশ্নের উত্তর জানতে বৃহস্পতিবার আইসিসি’র বোর্ড মিটিং’য়ের দিকে চোখ ছিল ক্রিকেটদুনিয়ার। সবচেয়ে বড় কথা আগামী অক্টোবরে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি২০ বিশ্বকাপ আয়োজনের প্রশ্নে প্রাক্তনদের দাবিতে খানিকটা কোণঠাসা আইসিসি সিদ্ধান্তটা এদিনের সভাতেই নিয়ে নেবে বলে মনে করেছিল বিশেষজ্ঞ মহল। কিন্তু বাস্তবে যা ঘটল তা ভিন্ন।
বিশ্ব ক্রিকেটের অ্যাপেক্স বডির বৈঠকে এদিন গোপনীয়তা রক্ষার ইস্যুতে সদস্যরা সুর চড়ানোয় বিশ্বকাপ নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ ঝুলেই রইল। ফলে ১০ জুনের আগে বিশ্বকাপ সংক্রান্ত কোনও বিষয়েই কোনওরকম সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবে না আইসিসি। চেয়ারম্যান শশাঙ্ক মনোহরের নেতৃত্বে এদিন টেলি কনফারেন্সে বোর্ড মিটিং’য়ের নির্যাস এটাই। সদস্যদের দাবি করা গোপনীয়তা রক্ষার বিভিন্ন ইস্যুগুলি নিয়ে ১০ জুন পরবর্তী সভায় সিদ্ধান্ত গ্রহণ করবেন আইসিসি সিইও। সদস্যদের আশ্বস্ত করার পরেই বিশ্বকাপ সহ বিভিন্ন কর্মসূচি নিয়ে চুড়ান্ত সিদ্ধান্ত গৃহীত হবে তারপরেই।
অর্থাৎ, আগামী ১৮ অক্টোবর থেকে আদৌ চলতি বছর টি২০ বিশ্বকাপ শুরু হবে কীনা, তা জানতে অপেক্ষা আরও বেশ কয়েকদিনের। আর বিশ্বকাপের সঙ্গে আইপিএলের ভাগ্য অনেকাংশে জড়িয়ে থাকায় ঝুলে রইল ভারতের মাটিতে ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ভবিষ্যতও। তবে এই সময়কালের মধ্যে আইসিসি ম্যানেজমেন্ট তার সদস্য দেশগুলোর সঙ্গে প্রতি মুহুর্তে করোনার জেরে পরিবর্তিত পরিস্থিতি সম্পর্কে খোঁজ খবর নেওয়া চালু রাখবে।
করোনার জেরে ক্রিকেটের আন্তর্জাতিক ক্রীড়াসূচিতে যেভাবে ব্যাঘাত ঘটেছে তাতে যথাসময়ে টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হওয়া নিয়ে ঘোর সংশয়। যা পরিস্থিতি তাতে বিশ্বকাপ পিছিয়ে যেতে পারে ২০২২ অবধি। সে বিষয়েই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে আইসিসি’র এদিনের বোর্ড মিটিং এদিন ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ ছিল।
খবর : কলকাতাটোয়েন্টিফোর’র।