চট্টগ্রামে করোনা চিকিৎসা মিলবে ইম্পেরিয়াল ও বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতালে

0
228
ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল
স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের নির্দেশে এই সিদ্ধান্ত – বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক

নিজস্ব প্রতিবেদক :

করোনা চিকিৎসায় যুক্ত হলো দুই বেসরকারি হাসপাতাল। চট্টগ্রামের ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল ও বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতাল দুটিকে করোনা চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। সরকারের সাথে সমঝোতা চুক্তির মাধ্যমে তারা চিকিৎসা কার্যক্রম শুরম্নর কথা রয়েছে।

এবিষয়ে চট্টগ্রামের বিভাগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির বলেন,‘ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে হাসপাতাল দুটি করোনা চিকিৎসার জন্য। এই নির্দেশনার আলোকে দুই হাসপাতাল কর্তৃপড়্গকে আজ চিঠি দেয়া হয়েছে।’

এই দুই হাসপাতাল কিভাবে তাদের চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করবে জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘ তাদের চিকিৎসার বিষয়ে সরকারের সাথে সমঝোতা চুক্তির মাধ্যমে চূড়ান্ত হবে। আর সেই চুক্তিতে তারা সরকারের কাছে কি সুযোগ সুবিধা চায় তা ঠিক হবে।’

সরকার কি কোনো চিকিৎসক সেখানে নিয়োগ দেবে? এই প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন,‘ না, তাদের চিকিৎসক, নার্স ও অবকাঠামো দিয়ে চিকিৎসা কার্যক্রম পরিচালনা করবে।’

তবে ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল করোনা চিকিৎসার জন্য শনাক্ত হওয়ায় চট্টগ্রামের মানুষের জন্য লাভ হয়েছে উল্লেখ করে ডা. হাসান শাহরিয়ার কবির বলেন,‘এই হাসপাতালটিতে অত্যাধুনিক সকল সুযোগ সুবিধা রয়েছে। এতে রোগীরা ভাল সেবা পাবে। এই দুই হাসপাতালে প্রায় ৬০০ বেড রয়েছে। এতে করোনা চিকিৎসায় রেডি দুই হাসপাতাল পাওয়া গেলো।’

এদিকে পুরো হাসপাতাল করোনা চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করা সম্ভব নয় বলে জানান বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতালের পরিচালক ও প্রধান কর্ম ব্যবস্থাপক ডা. কামরম্নল হাসান। তিনি বলেন, ইতিমধ্যে পুলিশের করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য আমাদের হাসপাতালটি ব্যবহৃত হচ্ছে। এছাড়া আমাদের এখানে গাইনিসহ বিভিন্ন রোগের রোগীরা ভর্তি রয়েছে। এই মুহুর্তে অন্যান্য রোগের চিকিৎসা বন্ধ করে শুধু করোনার চিকিৎসা দেয়া সম্ভব নয়। তারপরও কাল মঙ্গলবার স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাথে আমাদের বৈঠক রয়েছে, সেই বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে।

করোনা চিকিৎসায় চট্টগ্রামে সরকারি তিন ( জেনারেল হাসপাতাল, বিআইটিআইডি ও চমেক হাসপাতাল) হাসপাতালে এবং হলিক্রিসেন্টে সরকারের তত্ত্বাবধানে চিকিৎসা হচ্ছে। বর্তমানে চট্টগ্রামে প্রায় দুই হাজার করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।