বান্দরবানে শনাক্ত করোনা রোগী মিলল পটিয়ায়

0
100

এন এ জাকির, বান্দরবান :

বান্দরবান সদরে নতুন করে ২ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে। সোমবার রাতে বান্দরবান সিভিল সার্জন ডা.অং শৈ  মার্মা। আক্রান্তদের একজন মেঘলা লুম্বিনী গার্মেন্টস এর কর্মী তার বাড়ি কক্সবাজার জেলার ইদগা অপর জন বালাঘাটা স্বর্ণ মন্দির রোডের চায়ের দোকানদার তার বাড়ি পটিয়া উপজেলায়।

স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গত ১৮ তারিখ সকালে কক্সবাজারের ইদগা থেকে বান্দরবান আসায় লুম্বিনী গার্মেন্টস এর কর্মীর করোনার নমুনা পরীক্ষা করে তাকে মেঘলা এলাকায় হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয় আর স্বর্ন মন্দির এলাকার ওই ব্যক্তি জ্বর নিয়ে হাসপাতালে আসায় তার নমুনা সংগ্রহ করে তাকে স্বর্ন মন্দির রোডে তার বাসায় হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠায়।

আজ সোমবার তাদের রিপোর্ট পজেটিভ আসায় মেঘলার লুম্বিনী গার্মেন্টস কর্মীকে আইসোলেশনে নিয়ে আসা হয় এবং তার ভাড়া বাসায় অপর রুমমেট কে লকডাউন করা হয়। এদিকে স্বর্ন মন্দির রোডের দোকানদার গত ১৮ মে নমুনা দিয়ে তার গ্রামের বাড়ি চলে যায় তাকে বাসায় পাওয়া যায়নি তার দোকানের অন্য সদস্যকে কোয়ারেন্টিনে দিয়ে তার বাড়ি লকডাউন করে প্রশাসন।

বান্দরবান সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা হাবিবুল হাসান জানান, করোনা আক্রান্ত ২ জনের বাড়ি আমরা লকডাউন করেছি। একজনকে লুম্বিনী গার্মেন্টস এর কর্মী আনন্দ কে হাসপাতালে আইসোলেশনে নিয়ে এসেছি আর স্বর্ন মন্দির রোডের চায়ের দোকানদার ধনজয় দেব নাথ বান্দরবানে নেই। সে তার গ্রামের বাড়ি পটিয়া চলে গেছে।

আমরা পটিয়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে বলেছি সেখানে তার বাড়ি লকডাউন করতে এবং তাকে আইসোলেশনে নিতে।

বান্দরবানে এ পর্যন্ত ১৯ জন করোনা শনাক্ত হয়েছে।এর মধ্যে ৯ জন সুস্থ্য হয়ে বাড়ী ফিরে গেছে। বাকীরা প্রাতিষ্ঠানিক ও হোম কোয়ারেন্টিনে রয়েছে।