চকরিয়া পৃথক দুর্ঘটনা

গাড়িচাপায় বৃদ্ধা, পানিতে ডুবে শিশুর মৃত্যু

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া

কক্সবাজারের চকরিয়ায় সড়ক পারাপারের সময় ম্যাজিক গাড়ির চাপায় ছলেমা খাতুন (৭৮) নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কক্সবাজার-চট্টগ্রাম মহাসড়কের চকরিয়া পৌরসভার ভাঙ্গারমুখ এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত ছলেমা খাতুন মহেশখালী উপজেলার কালারমারছড়া ইউনিয়নের ঝাপুয়া এলাকার মরহুম মোহাম্মদ ছৈয়দের স্ত্রী এবং তিনি মহেশখালী উপজেলা পরিষদের নারী ভাইস-চেয়ারম্যান জাহানারা বেগমের মাতা।
দুর্ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া উপজেলার চিরিঙ্গা হাইওয়ে পুলিশের আইসি নুরে আলম পলাশ সুপ্রভাতকে বলেন, শনিবার সকাল সাড়ে ৯টায় ভাঙ্গারমুখ এলাকায় সড়ক পার হচ্ছিলেন ছলেমা খাতুন। এসময় কক্সবাজার থেকে চকরিয়াগামী একটি ম্যাজিক গাড়ি ওই বৃদ্ধাকে চাপা দিলে তিনি গুরুতর আহত হন। পরে স’ানীয় লোকজন উদ্ধার করে চকরিয়া উপজেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযান চালিয়ে ঘাতক ম্যাজিক গাড়িটি জব্দ করতে পারলেও গাড়ির চালক ও হেলপারকে আটক করতে পারেনি।
এদিকে মামাতো ভাইদের সাথে বাড়ির অদূরে বড়শি নিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে পানিতে ডুবে শিহাব উদ্দিন (১০) নামের এক মাদরাসা শিক্ষার্থী মারা গেছে। গতকাল শনিবার সকাল সাড়ে আটটার দিকে উপজেলার ডুলাহাজারা ইউনিয়নের ডুমখালী এলাকায় ঘটেছে এ ঘটনা। নিহত শিহাব উদ্দিন ওই এলাকার মনির আহমদের ছেলে।
ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নুরুল আমিন বলেন, শনিবার সকালে মামাতো ভাইদের সাথে মাছ ধরার এক পর্যায়ে শিহাব মৎস্যঘেরের পানিতে পড়ে যায়। ঘটনার পর পরিবারের লোকজন ও স’ানীয়রা ঘটনাস’লে পৌঁছে ঘেরের পানি থেকে শিহাবের মরদেহ উদ্ধার করে।
চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দীন চৌধুরী বলেন, পানিতে ডুবে শিশু শিক্ষার্থী মারা যাওয়ার খবর পেয়ে ঘটনাস’লে পুলিশ যায়। লাশের প্রাথমিক সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি শেষে তাকে দাফনের অনুমতি দেওয়া হয়।