বালতির পানিতে চুবিয়ে শিশু খুন

ঘটনা রহস্যজনক বলছে পুলিশ, তদন্তে পিবিআই

নিজস্ব প্রতিবেদক গ্ধ
নগরের পতেঙ্গায় ৯ মাস বয়সী এক শিশুকে খুন করেছে দুর্বৃত্তরা। গত ১৫ জুন বিকেলে সতীশ মহাজন লেইনে সাজু মহাজনের বাড়ির নিচতলার একটি বাসায় নির্মম এ ঘটনা ঘটে। তবে শিশু খুনের এ ঘটনাটি রহস্যজনক বলছে পুুলিশ ব্যুরো অফ ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।
পিবিআই কর্মকর্তারা বলছেন, সেদিন দুই যুবক ঘরে ঢুকে মায়ের কোল থেকে কেড়ে নিয়ে টয়লেটে রাখা পানিভর্তি বালতিতে চুবিয়ে শিশুটিকে হত্যা করে। এরপর মাকে জিম্মি করে তার কাছ থেকে চাবি নিয়ে আলমিরা খুলে ২০ হাজার টাকা নিয়ে চম্পট দেয়। কিন’ একই আলমিরার অপর ড্রয়ারে থাকা চারলাখ টাকা নেয়নি ওই দুই যুবক।
পিবিআই’র অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (চট্টগ্রাম মেট্রো) মো. মঈন উদ্দীন বলেন, ‘ঘটনাটি খুবই নির্মম। প্রশ্ন হলো-শিশুটি খুন করার পর ড্রয়ারে থাকা চারলাখ টাকা না নিয়ে দুই যুবক শুধু ২০ হাজার টাকা নিয়ে পালালো কেন। দুই যুবক বাসায় ঢুকে শিশুটি খুন করল কোনো চিৎকার চেঁচামেচি হলো না। বেরিয়ে যাওয়ার সময় কেউ তাদের দেখল না। রহস্য এখানেই। বিষয়টি পুলিশের পাশাপাশি পিবিআই তদন্ত করছে। আশাকরি শিগগির একটা ফলাফল আসবে।’
পিবিআই জানায়, নিহত শিশুটির নাম নিঝুম মিত্র তরী। বাবার নাম রিপন মিত্র। মায়ের নাম চম্পা মিত্র। রিপন বেসরকারি একটি প্রতিষ্ঠানে চাকরি করেন। রিপন মিত্র’র বরাত দিয়ে পতেঙ্গা থানার ওসি আবুল কাশেম ভুঁইয়া জানান, ঘটনার দিন শিশুটির বাবা রিপন ছিলেন গ্রামের বাড়ি সাতকানিয়ায়। সেদিন বাসায় ছিলেন রিপনের স্ত্রী ও তার দুই মেয়ে। ওই বাসায় নিকটাত্মীয় আরও দুই যুবক থাকেন। ঘটনার সময় তারা ছিলেন বাইরে।
১৫ জুন বিকেল পাঁচটার দিকে রিপনের স্ত্রী চম্পা ঘুমাচ্ছিলেন। এসময় কলিংবেল শুনে চম্পা দরজা খুলে দিলে দুই যুবক ঘরে ঢুকেন। এসময় চম্পার কোল থেকে তরীকে কেড়ে নিয়ে এক যুবক টয়লেটে চলে যায়। আরেকজন ধারালো অস্ত্র দিয়ে চম্পাকে জিম্মি করে রাখে। এসময় টয়লেট থেকে চিৎকার শুনতে পান চম্পা। এরপর টয়লেট থেকে বের হয়ে দুই যুবক চম্পাকে ভয়ভীতি দেখালে চম্পা তার আঙ্গুল থেকে সোনার আংটি খুলে দেন। এরপর চম্পার কাছ থেকে চাবি কেড়ে নিয়ে আলমিরা থেকে ২০ হাজার টাকা নিয়ে চলে যান তারা। এরপর টয়লেটে গিয়ে চম্পা দেখতে পান, তার মেয়ে তরী বালতির ভেতরে পানিতে উপুড় হয়ে পড়ে আছে। এ দৃশ্য দেখে অজ্ঞান হয়ে যান চম্পা। বিষয়টি জেনে প্রতিবেশীরা ফোন করলে সাতকানিয়া থেকে দ্রুত বাসায় ফিরে আসেন চম্পার স্বামী রিপন।
এ ঘটনায় অজ্ঞাত দুই যুবককে আসামি করে পতেঙ্গা থানায় মামলা দায়ের করেছেন রিপন। পতেঙ্গা থানার ওসি আবুল কাশেম ভূঁইয়া জানান, ‘দুই যুবক ঘরে ঢুকে ৯ মাসের শিশুকে খুন করেছে। কেউ কিছু জানতে পারল না। ঘটনাটি রহস্যজনক মনে হচ্ছে।’