ব্যস্ততা বেড়েছে ছাতা মেরামতকারীদের

রাজু কুমার দে, মিরসরাই
Mirsarai ctg chata karigor photo 11.6

মিরসরাইয়ে বেড়েছে ছাতা মেরামতকারীদের ব্যস্ততা। টানা বৃষ্টির কারণে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন থেকে সাধারণ মানুষ ভিড় করছে ছাতা মেরামত করতে। ফলে এখন সময় ছাতা মেরামতকারীদের । উপজেলার বিভিন্ন বাজার ঘুরে ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা চোখে পড়ে। টানা বৃষ্টিতে অন্য ব্যবসায়ীদের কপাল পুড়লেও ব্যস্ত সময় পার করলেও ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা বেড়ে চলছে। উপজেলার শান্তিরহাট, বারইয়ারহাট, নিজামপুর, মিরসরাই, বড়তাকিয়া, করেরহাট, জোরারগঞ্জসহ বিভিন্ন বাজার ঘুরে দেখা গেছে অন্য সময়ের তুলনায় ছাতা কারিগরদের ব্যস্ততা অনেক বেড়ে গেছে। তারা নাওয়া খাওয়া ভুলে রাত দিন শুধু কাজ করে যাচ্ছেন। তবে ছাতা মেরামতের সামগ্রীর দাম বেড়ে যাওয়া একটু বেশি টাকা নিচ্ছে মেরামতকারীরা। ফলে বাড়তি টাকা গুণতে হচ্ছে সাধারণ মানুষকে। মিরসরাই পৌরসদরে ছাতা কারিগর রিপন দাশ জানান, টানা বৃষ্টিতে উপজেলার বিভিন্ন স’ান থেকে পুরোনো ও নষ্ট ছাতা মেরামত করতে কারিগরদের কাছে ছুটছে সাধারণ মানুষ। তিনি দৈনিক ১৫ থেকে ২০টি ছাতা মেরামত করে থাকে। ছাতা মেরামত করে দৈনিক ৫শ থেকে ৮শ টাকা আয় হয়। তবে বছরের অন্য সময় ব্যস্ততা তেমন থাকে না।
বারইয়ারহাট রেলগেইট এলাকায় ছাতা মেরামত করতে আসা নুরুল আমিন জানান, তার ঘরে দুইটা ছাতা নষ্ট হয়ে গেছে। তিনি ছাতাগুলো মেরামত করতে এসেছেন। একটি ছাতা মেরামত করতে ৮০টাকা নিচ্ছে ছাতার কারিগর মো. বেলায়েত। কারিগর বেলায়েত জানান, তার বাড়ি মুন্সিগঞ্জ। তিনি প্রত্যেক বছর বৃষ্টির সময় চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় ছাতা মেরামত করতে বের হন। প্রতিদিন ২৫ থেকে ৩০টি ছাতা মেরামত করে থাকেন। দৈনিক এক হাজার থেকে ১৫শ টাকা আয় হয়।