পাহাড়তলী ওয়ার্ড যুবলীগের অনুষ্ঠানে বক্তারা

পেশীশক্তির রাজনীতি দিয়ে ভালোবাসা অর্জন করা যায় না

বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম মহানগর যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মো. দিদারুল আলম বলেন, তরুণ ও যুব সমাজকে কল্যাণকর কাজে উৎসাহিত করতে হবে। মাদক-সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠনে যুবলীগের প্রতিটি নেতাকর্মীকে ভ্যানগার্ডের কর্মী হিসেবে অতন্দ্র প্রহরীর দায়িত্ব পালন করতে হবে। মানবকল্যাণের জন্য রাজনীতি, তাই পেশীশক্তির রাজনীতি দিয়ে জনগণের ভালোবাসা অর্জন করা যায় না। প্রতিটি রাজনৈতিক নেতাকর্মীকে লোভ-লালসার রাজনীতি হতে দূরে থেকে পবিত্র ও সৎ আদর্শের রাজনীতি করতে হবে। সন্ত্রাসমুক্ত সমাজ গঠনে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে।
৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী যুবলীগের উদ্যোগে ওয়ার্ডের গোলপাহাড় এলাকায় ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এই আহ্বান জানান।
অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা ৯ নম্বর উত্তর পাহাড়তলী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও কাউন্সিলর মো. জহুরুল আলম জসিম বলেন, বর্তমানে মাদক সমাজের প্রতিটি স্তরে বিস্তার লাভ করেছে। সরকার সকল মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের বিরুদ্ধে সাড়াশি অভিযান চালাচ্ছে। মাদক ব্যবসায়ী ও সেবীরা এখনো ঘাপটি মেরে আছে। তাই সকলকে মাদক ব্যবসায়ী ও মাদকসেবীদের থেকে সচেতন থাকতে হবে।
ওয়ার্ড আওয়ামী যুবলীগ নেতা বেলাল আহমেদ সরকারের সভাপতিত্বে ও আনোয়ার আজিমের সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন পুলক খাস্তগীর, এস.এম. আলম, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মোশাররফ হোসেন দুলাল, মো. জসিম উদ্দিন, এস.এম. কাউসার, জাহাঙ্গীর কবির নয়ন, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সম্পাদক মো. পাভেল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা মনিরুল হক, এমরান হোসেন, সেকান্দর মোল্লা, সেলিম, ফারুক, খোরশেদ আলম, যুবলীগ নেতা বেলাল উদ্দিন জুয়েল, আনিছ চৌধুরী রাজন, মো. শফিকুল ইসলাম ওয়াসিম, মো. ফারুক, সেলিম, তানভীর, ইসমাইল, আজিম, কাউসার, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আবু নোমান নাহিদ, ছাত্রলীগ নেতা মোস্তাফিজুর রহমান রোকন, তৌহিদুল ইসলাম তৌহিদ, মারুফ, বাধন, রাব্বি, শিমুল, ইয়াছিন, ফোরকান, শাহ আলম প্রমুখ।