যুবদল নেতা হারুণ হত্যা

৬ আসামি রিমান্ডে

নিজস্ব প্রতিবেদক

নগরীর সদরঘাটে যুবদল নেতা ও পরিবহন ব্যবসায়ী হারুণ হত্যার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ছয় আসামিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তিন দিন করে রিমান্ডে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল মহানগর হাকিম আল ইমরানের আদালত এ আদেশ দেন।
পুলিশের করা ১০ দিনের রিমান্ড আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে আদালত শুনানি শেষে তাদের রিমান্ডে পাঠানোর এ আদেশ দেন।
ছয় আসামি হলো, মো. নুরুন্নবী (৩২), তার ছোট ভাই

মো. কায়সার (২৫), মো. শরীফ (৩৫), মো. জসীম ওরফে তোতলা জসীম (২৯), মো. সালাউদ্দিন ওরফে দুলাল (৪০) এবং তৌকির হোসেন ওরফে সেজান (৩০)।
আদালতসূত্রে জানা গেছে, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গত ৬ ফেব্রুয়ারি গ্রেফতার মামুন ও শরবত আলমগীর নামের দুই ব্যক্তি আদালতে দেওয়া জবানবন্দিতে বলেছিল, রাজনৈতিক বিরোধে নয়, ট্রাকচালকের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেওয়া টাকা ফেরত দিতে বলায় খুন করা হয় হারুণকে।
নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী বলেন, ছয় আসামির সবাই এজাহারভুক্ত। মামলার পরপর উচ্চ আদালত থেকে তারা সাবাই জামিনে ছিলেন। তিনি আরও বলেন, জামিন বাতিল হওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার তারা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করলে আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।
উল্লেখ্য, গত ৩ ডিসেম্বর নগরীর কদমতলী এলাকায় গুলি করে হত্যা করা হয় স’ানীয় পরিবহন ব্যবসায়ী ও যুবদল নেতা হারুণকে। এ ঘটনায় নিহতের বড় ভাই হুমায়ুন চৌধুরী ১০ জনকে আসামি করে সদরঘাট থানায় মামলা করেছিলেন।
হারুণ হত্যা মামলার অন্যতম আসামি মো. আলমগীর ও তার ছোট ভাই মো. হৃদয় এখনও পলাতক আছে। তাদের ধরতে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।