আটকে গেল উত্তর জেলা যুবদলের কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদক

কমিটির নেতৃত্ব চূড়ান্তের পর গতকাল মঙ্গলবার কেন্দ্র থেকে চট্টগ্রাম উত্তর জেলা যুবদলের পাঁচ সদস্যের আংশিক কমিটি ঘোষণার কথা ছিল। কিন’ সোমবার রাতে যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু গ্রেফতার হওয়ার কারণে কমিটি আটকে যায়।
ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম মহানগর ও দক্ষিণ জেলা যুবদলের কমিটি ঘোষণা হয়েছে। বাকি আছে চট্টগ্রাম উত্তর জেলার কমিটি।দলীয় সূত্রে জানা গেছে, বিএনপির শীর্ষ পর্যায়ের সম্মতিতে উত্তর জেলা যুবদলের নতুন নেতৃত্ব চূড়ান্ত করা হয়ে গেছে। গতকাল যুবদলের দপ্তরে কমিটির তালিকা আসার কথা ছিল। কিন্ত যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু গ্রেফতার হওয়ার কারণে কমিটির তালিকা আর আসেনি।
যুবদল কেন্দ্রীয় কমিটির দপ্তরের দায়িত্বে থাকা কামরুজ্জামান দুলাল গতরাতে সুপ্রভাতকে বলেন, ‘বিএনপির শীর্ষ পর্যায় থেকে আজ (গতকাল) কমিটির নেতাদের নাম পাওয়ার কথা ছিল। এরপর তালিকা তৈরি করে যুবদলের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর নেওয়ার কথা ছিল। কিন’ যুবদলের সাধারণ সম্পাদক গ্রেফতার হয়ে যাওয়ার কারণে শীর্ষ পর্যায় থেকে বার্তা আর আসেনি।’
তিনি বলেন, ‘কাউকে ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব দেওয়া হলেও গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিনি নীতিনির্ধারণী কাজ করতে পারবেন না। কেবল সংগঠনের চলমান কার্যক্রম করতে পারবেন। এ অবস’ায় আপাততে আর কমিটি ঘোষণা করা হবে বলে মনে হয় না।’
দলীয় সূত্রে জানা গেছে, জেলা যুবদলের নতুন কমিটিতে আবারও সভাপতি পদে প্রত্যাশী সীতাকুণ্ড এলাকার কাজী সালাউদ্দিন। তিনি জেলা যুবদলের বর্তমান কমিটিতে সভাপতি পদে আছেন। তিনি জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কারাবন্দি আসলাম চৌধুরীর অনুসারী।
বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক সোলায়মান মঞ্জুও সভাপতি পদে প্রত্যাশী। এ যুবদল নেতার বাড়ি হলো হাটহাজারীর মাদার্শায়। তিনি বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিনের অনুসারী। মীল নাছির তাঁর জন্য সুপারিশ করেছেন বলে দলীয় সূত্রে জানা গেছে।
সাধারণ সম্পাদক পদে প্রত্যাশী আছেন তিনজন। এরা হলেন, ইউসুফ চৌধুরী, মো. ইলিয়াছ আলী ও সরওয়ার সেলিম। এদের মধ্যে রাঙ্গুনিয়া এলাকার বাসিন্দা ইউসুফ হলেন বিএনপির কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন কাদের চৌধুরীর অনুসারী। হাটহাজারীর বাসিন্দা ইলিয়াছ আলী হলেন বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা এস এম ফজলুল হকের অনুসারী। আর মীরসরাই এলাকার সরওয়ার সেলিম হলেন মীর নাছিরের অনুসারী।
২০১১ সালের ২ নভেম্বর কাজী সালাউদ্দিনকে সভাপতি ও সোলায়মান মঞ্জুকে সাধারণ সম্পাদক করে উত্তর জেলা যুবদলের ৭ সদস্যের আংশিক কমিটি গঠন হয়েছিল। গত ৭ বছরে এই কমিটি পূর্ণাঙ্গ হয়ে উঠেনি। দলের আন্দোলন-সংগ্রাম ও আগামী সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে কেন্দ্র সম্প্রতি নতুন কমিটি গঠনের উদ্যোগ নেয়।