ঈদের আগে খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে দুর্বার আন্দোলন

বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি আবু সুফিয়ান বলেন, ‘জনগণের লুণ্ঠিত গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করতে সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলন করতে গিয়ে ‘মিথ্যে মামলা’ দিয়ে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাবন্দি করে রাখা হয়েছে। একের অপর এক ‘মিথ্যে মামলায়’ গ্রেফতার দেখিয়ে তার মুক্তির পথ বিলম্বিত করা হচ্ছে। অবিলম্বে ঈদের পূর্বে খালেদা জিয়াকে মুক্তি না দিলে জনগণকে সাথে নিয়ে দুর্বার আন্দোলন গড়ে তুলে যেকোন মূল্যে নেত্রীকে মুক্ত করে আনবো।
আবু সুফিয়ান বলেন, ‘জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা করেন। জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে তিনি খাল কাটা কর্মসূচি প্রণয়ন করে কৃষিতে ও শিল্প-কারখানা প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে শিল্পে বিপ্লব ঘটিয়ে দেশের উন্নয়ন শুরু করেন।
তিনি আরো বলেন, দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া ৯০ই এর স্বৈরাচার সরকারের পতন ঘটিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা করে দেশকে আরো শক্তিশালী ও সমৃদ্ধশালী রাষ্ট্রে পরিণত করেন। একটি অংশীদারিত্বমূলক সামাজিক ও ন্যায়বিচার সম্পন্ন সুখী-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের লক্ষ্যে তিনি কাজ করে গেছেন।
৬ নম্বর পূর্বষোলশহর ওয়ার্ড বিএনপি ও অঙ্গসংগঠন এর উদ্যোগে সাবেক রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৩৭তম শাহাদাত বার্ষিকী ও দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে আয়োজিত আলোচনা সভা, দোয়া ও ইফতার মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। ৬ নম্বর পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক কাউন্সিলর মুহাম্মদ হাসান লিটন এর সভাপতিত্বে উক্ত আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি মাহবুবুল আলম, সহ-সভাপতি নাজিমউদ্দিন আহমেদ, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক মঞ্জুর আলম মঞ্জু। আলোচনা সভায় প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন, মহানগর বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার হোসেন লিপু। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন মহানগর বিএনপির মৎস্য বিষয়ক সম্পাদক মো. বখতেয়ার, ন্যাপ মহানগর শাখার সভাপতি ওসমান গণি সিকদার, মহানগর বিএনপির সবেক সদস্য রাজা মিয়া, মঞ্জুর আলম মঞ্জু, জানে আলম জিকু। চান্দগাঁও থানা ছাত্রদল এর সাধারণ সম্পাদক গোলজার হোসেন এবং ছাত্রদল নেতা আবু বক্কর রাজু’র যৌথ সঞ্চালনায় সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মোশাররফ হোসেন, আফিলউদ্দিন, গিয়াসউদ্দিন ভূঁইয়া, মনছুর কাইয়ুম, শওকত আলী, মো. ফোরকান, মো. আলমগীর, ফজল আজিম মাসুম, মো. হোসেন, আলী হোসেন, হাজী আইয়ুব, আব্দুস সাত্তার মুন্সী। সভায় উপসি’ত ছিলেন, দিদারুল আলম হিরামন, মো. দিদার, মো. সেলিম, মনছুর আলম, মো. ইসকান্দর হোসেন, জমির উদ্দিন মানিক, আরিফুল ইসলাম, সাইদুল ইসলাম, আলমগীর টিটু।