ইফতার মাহফিলে ভিসি

উচ্চশিক্ষায় গবেষণাকে গুরুত্ব দিচ্ছে আইআইইউসি

নিজস্ব প্রতিবেদক
iiuc ifter mahfil-vc (2)

উচ্চশিক্ষায় গবেষণাকে বিশেষ গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে। এজন্য আলাদাভাবে সেন্টার ফর রিসার্চ অ্যান্ড পাবলিকেশন নামে ইউনিট করা হয়েছে। বর্তমানে গবেষণায় ব্যয় হচ্ছে এক কোটি টাকার অধিক। গবেষণায় দেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে ২৪তম ও বেসরকারিতে ৩য় স’ানে অবস’ান করছে আইআইইউসি। এর অংশ হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে ১১টি আন্তর্জাতিক কনফারেন্স।
গতকাল বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (আইআইইউসি) কর্তৃক আয়োজিত ইফতার মাহফিলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর কে. এম. গোলাম মহিউদ্দিন এসব কথা বলেন। নগরীর জিইসি মোড়স’ একটি রেস্টুরেন্টে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর কে. এম. গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের পাশাপাশি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো দেশের উচ্চ শিক্ষায় অবদান রাখছে। বর্তমানে আইআইইউসি’র ছয়টি অনুষদের অধীন ১১টি বিভাগে পড়াশোনা করছে ১০ হাজার শিক্ষার্থী। এছাড়াও অনেক বিদেশি শিক্ষার্থী আইআইইউসিতে পড়ছে। এটি আমাদের জন্য গৌরব। বর্তমানে ৯টি দেশের দুই শতাধিক শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত আছে। অন্যদিকে প্রতিবছর দরিদ্র শিক্ষার্থীদের আর্থিক অনুদান দেওয়া হচ্ছে। মুক্তিযোদ্ধার সন্তানদের বিনা বেতনের পড়াশোনার সুবিধা রাখা হয়েছে।
আগামী ১৪ জুলাই আইআইইউসি’র ৪র্থ সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হবে জানিয়ে প্রফেসর কে. এম. গোলাম মহিউদ্দিন বলেন, সমাবর্তনে প্রায় তেইশ হাজার শিক্ষার্থীর মাঝে সনদ বিতরণ করা হবে। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এতে সভাপতিত্ব করবেন।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী পরিচালক (জনসংযোগ) মোসতাক খন্দকারের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপসি’ত ছিলেন বোর্ড অব ট্রাস্টিজ সদস্য প্রফেসর আহসানউল্লাহ, প্রো-ভিসি ড. মো. দেলাওয়ার হোসেন, শরীয়াহ অনুষদের ডিন ড. নাজমুল হক নদভী, ট্রেজারার ড. আবদুল হামিদ চৌধুরী, বিজ্ঞান ও প্রকৌশল অনুষদের ডিন ড. মনিরুল ইসলাম, কলা ও মানবিক অনুষদের ডিন প্রফেসর মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর, রেজিস্ট্রার মো. কাসেম, ফিমেল একাডেমি কমপ্লেক্সের চিফ ইনচার্জ ড. মুহাম্মদ মাহবুবুর রহমান প্রমুখ।