বললেন আ জ ম নাছির

নগর আওয়ামী লীগে ‘মীর জাফর আছে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

চট্টগ্রাম নগর আওয়ামী লীগে ‘মীর জাফর আছে’ জানিয়ে সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দীন বলেছেন, ‘এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। আমাদের ভেতর বেঈমানও আছে। শুধু মহানগর নয়, তৃণমূল ইউনিট শাখা পর্যন্ত মীর জাফর ও বেঈমানরা বিস্তৃত আছেন।’
গতকাল নগর আওয়ামী লীগের এক আলোচনায় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার ৩৮তম স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে নগরীর জেলা পরিষদ কার্যালয়ে এ সভা অনুষ্ঠিত হয়।
‘দলের ভেতর মীর জাফর ও বেঈমান কারা ?’-এমন প্রশ্ন রেখে সভায় আ জ ম নাছির বলেন, ‘তারা কাজ করুক আর না করুক, পদে আছে। হয়তো কেউ কেউ মিছিল নিয়ে সভা-সমাবেশেও আসেন। নির্বাচন কার্যক্রমেও অংশগ্রহণ করেন। কিন্তু আমাদের তথ্য প্রতিপক্ষের কাছে গোপনে ফাঁস করে দেন।’ ‘এসব বেঈমানি হয়ে আসছে, যা আমরা অস্বীকার করতে পারবো না’, ’বলেন তিনি।
আগামী একাদশ সংসদ নির্বাচনে বিএনপি অংশ নিলে ‘প্রশাসনের অনেক কর্মকর্তার রূপ পাল্টে যাবে’ বলে মন্তব্য করেন সিটি মেয়র আ জ ম নাছির।
তিনি বলেন, ‘বিএনপি নির্বাচনে আসলে এখন আমাদের সাথে প্রশাসনের
যারা আছে পুলিশ বলেন, র‌্যাব বলেন অনেকের কিন্তু রূপ পাল্টে যাবে। তখন আমাদেরকে জনগণের ওপর নির্ভর করে নির্বাচনী বৈতরণী পার হতে হবে।’
মেয়র নাছির বলেন, ‘নির্বাচনে কোনো কারণে যদি আমাদের বিপর্যয় হয়, তাহলে কারো অস্তিত্ব থাকবে না। তাই আমাদের উচিত ভেদাভেদ ভুলে নির্বাচনের আগে ঐক্যবদ্ধ হওয়া।’
নগর আওয়ামী লীগের অধিকাংশ ইউনিট কমিটির অবস্থা ভালো নয় জানিয়ে তিনি বলেন, ‘বিভিন্ন সভা-সমাবেশে ইউনিটের নেতাদের আমরা ধরে নিয়ে আসি। ইউনিটের নেতাদের দূরত্ব নিরসন করে ফেলা উচিত।’
নগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাহতাব উদ্দিনের সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন সহসভাপতি অ্যাডভোকেট ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী বাবুল, খোরশেদ আলম সুজন, সাংগঠনিক সম্পাদক নোমান আল মাহমুদ ও শফিক আদনান প্রমুখ।