‘৭৫ দুঃখী মাকে নিয়ে অন্যরকম মা দিবস’

বিজ্ঞপ্তি
ma-dibosh

‘মা উৎসব উদযাপন করেছেন ফেসবুক কেন্দ্রিক সংগঠন ‘সম্মিলিত মানবিক জাগরণ (সমাজ)।এটি মায়েদের নিয়ে সমাজের ২য় আয়োজন।
ররিবার ৭৫ দুঃখী মাকে গাডিওলাস ও লালগোলাপের স্টিক দিয়ে বরণ করেছেন অচেনা সন্তানরা। তাদের রক্তচাপসহ নানা পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন তরুণ চিকিৎসকরা। মৌসুমি ফল তরমুজ, আনারস, পেঁপে, আপেল কমলা সহ রকমারি ফলদিয়ে আপ্যায়ন।
মধ্যাহ্নভোজ ও কেক কাটার পাশাপাশি ছিল মাকে নিয়ে গান ও কবিতার আসর। সংগীত পরিবেশন করেন অমিত সেনগুপ্ত, সৌমেন ভট্টাচার্য ও প্রসেনজিত।
কবিতা পাঠ করেন পুলিশ সার্জেন্ট শান্তময় দাশ। নিজের কথা বলতে গিয়ে কেঁদে ফেলেন নমিতা বড়ুয়া নামের এক মা। তিনি বলেন, এক সময় সোনার সংসার ছিল আমার, আজ আর কিছুই নেই। কেউ খবর রাখে না।তবে আজ আমার অনেক সন্তান। এটাই আমার সব চেয়ে বড় আনন্দ।
সংগঠনের মূল উদ্যোক্তা ছিলেন শিক্ষক ও কণ্ঠশিল্পী অনুপম দেবনাথ পাভেল, সমন্বয়ক অ্যাডভোকেট শুভাশীষ শর্মা, অ্যাডভোকেট রুবেল কুমার দেব অপু ও রাজীব দত্ত রাজু।
দুঃখী মাদের চিকিৎসাসেবা দেন ডা.সজিব তালুকদার, ডা. আনিকা,ডা. শর্মিলী, ডা. অপুর্ব ধর, ডা. এস কে পাল সুজন ও ডা. সঞ্জয়। উপসি’ত ছিলেন নগর মহিলা আওয়ামী লীগ সভানেত্রী হাসিনা মহিউদ্দিন,কাউন্সিলর নিলু নাগ, ডা. প্রীতি বড়ুয়া,সংগঠক নাজিমুদ্দিন চৌধুরী এ্যানেল, সমাজসেবী কনক বিশ্বাস তুলি, দিনা জালাল, আহমেদ মনছুর, ডা. লিটন দাশ, ডা. সুজন ধর, পলাশ কান্তি নাথ রণি প্রমুখ। উল্লেখ্য, ৭৫ দুঃখী মাকে সংগঠনের কর্র্মীরা মাসব্যাপী কার্যক্রমের মাধ্যমে সংগ্রহ করেন।