জমে উঠেছে এপিক বৈশাখী আবাসন মেলা

বিজ্ঞপ্তি

বাংলা নববর্ষে এপিক বৈশাখী আবাসন মেলায় ভিড় বেড়েছে। গত ১৫ এপ্রিল শুরু হওয়া মেলায় শুক্রবারও গ্রাহকদের ব্যাপক সাড়া মিলেছে। নানা শ্রেণি-পেশার গ্রাহকদের মিলনমেলায় পরিণত হয়েছে এপিক বৈশাখী আবাসন মেলাটি। কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, চিকিৎসক, আইনজীবী, ব্যাংকারদের পাশাপাশি ব্যবসায়ীও যোগ দিয়েছেন এ মেলায়। শুরুর দিন থেকে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি ফ্ল্যাটের বুকিং হয়েছে মেলাতে। এপিক প্রপার্টিজ দেশের আবাসন খাতে সুনাম কুড়ানো একটি প্রতিষ্ঠান। দীর্ঘ ১৫ বছর ধরে নিজেদের অভিজ্ঞতাকে আরো সমৃদ্ধ করা এপিক প্রপার্টিজের রয়েছে এক ঝাঁক তরুণ মেধাবী বুয়েট প্রকৌশলী। যাদের হাতে বুনিত হচ্ছে নিত্য নতুন নির্মাণশৈলী। যে কারণে আধুনিক-প্রযুক্তিগত ও পরিবেশবান্ধব করে তৈরি হওয়া এপিকের প্রকল্পগুলোতে গ্রাহকদের আগ্রহ বাড়ছে। তাছাড়া বাণিজ্যিক নগরী চট্টগ্রাম ও রাজধানী ঢাকার প্রাইম লোকেশনগুলোতেই রয়েছে এপিকের প্রকল্পগুলো। বাণিজ্যিক ও আবাসিক প্রকল্পগুলো গ্রাহকরা বুঝে পাচ্ছেন নির্ধারিত সময়েই। কয়েকটি রেডি প্রকল্প পাচ্ছেন বুকিং দেওয়ার সাথে সাথেই।
সূত্রে জানা গেছে, এবারের মেলায় ঢাকা ও চট্টগ্রাম মিলে ২১টিরও বেশি রেডি ও নির্মাণাধীন আবাসিক ও বাণিজ্যিক প্রজেক্ট নিয়ে এসেছে এপিক। এর মধ্যে চট্টগ্রামে চট্টেশ্বরী রোড, দেবপাহাড়, চন্দনপুরা, ফিরিঙ্গী বাজার, কালামিয়া বাজার, কাতালগঞ্জ আবাসিক এলাকা, চান্দগাঁও আবাসিক এলাকা, ও আর নিজাম রোড আবাসিক এলাকা, দক্ষিণ খুলশী, লালখান বাজার, নন্দন কানন এবং রাজধানী ঢাকায় বসুন্ধরা আবাসিক এলাকা, উত্তরা, রামপুরা, কাওরান বাজারের মতো ব্যস্ততম এলাকায় এপিকের প্রজেক্ট রয়েছে। মেলা চলবে ২৫ এপ্রিল পর্যন্ত।
শুক্রবার বিকেলে মেলায় কথা হয় ব্যাংকার আহমেদ গিয়াসের সাথে। তিনি বলেন, ‘এপিক একটি নামকরা প্রতিষ্ঠান। প্রকল্পগুলোও সুন্দর ও মার্জিত। মেলায় এসেছি, এপিকের প্রকল্পগুলো সম্পর্কে জানতে। স্কুল-কলেজ ও হাসপাতালের সন্নিকটে থাকা একটি ফ্ল্যাট নিতে চাইছি।’
মেলায় আসা আরেক ব্যবসায়ী জামাল উদ্দিন বলেন, ‘আমার পুরোনো একটি ফ্ল্যাট রয়েছে। তবে বাচ্চারা একটি নতুন বাসা নিতে চাইছে। যেহেতু এপিক নান্দনিক ডিজাইনে ফ্ল্যাটগুলো তৈরি করেন, সেহেতু স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে এপিকের মেলায় এসেছি। দরদামে বনিবনা হলে আজই বুকিং দিয়ে দেব।’
এপিক প্রপার্টিজ এর ব্যবস’াপনা পরিচালক প্রকৌশলী এস এম আবু সুফিয়ান বলেন, ‘এপিক শুধু লাভের আশায় ব্যবসা করে না। মানসম্মত ফ্ল্যাট তৈরি করে গ্রাহকদের সন’ষ্টি অর্জন করাই আমাদের মূল টার্গেট।