বৈশাখী মিলন মেলায় অনুপম সেন

আরো দু’দফা আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আসতে হবে

নির্বাচনমুখী কার্যক্রম শুরু করতে হবে : ব্যারিস্টার নওফেল

নিজস্ব প্রতিবেদক
pic-01

অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যে কমপক্ষে আরো দু দফা আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় আসতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপদেষ্টা মণ্ডলীর সদস্য, প্রফেসর ড. অনুপম সেন। তিনি বলেন, ‘স্বাধীনতার পরপরই এদেশে ৭০ শতাংশ মানুষ দারিদ্র সীমার নিচে ছিল। এখন তা ২২ শতাংশে, সেই সময় মাথাপিছু আয়ের পরিমাণ ছিল মাত্র ৬০ ডলার। বর্তমানে তা ১৪০০ ডলার ছাড়িয়ে গেছে। তিনি জোর দিয়ে বলেন, বর্তমান উন্নয়ন ও অগ্রগতির ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকলে ২০২১ সালে মধ্য আয়ের দেশ ও ২০৪১ সালে বাংলাদেশ উন্নত দেশে পরিণত হবে।’
গত শনিবার ফিশারীঘাটের মেরিনড্রাইভ রোডে ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের পৃষ্ঠপোষকতায় ইউনিট্রেড’র উদ্যোগে অনুষ্ঠিত বৈশাখী মিলন মেলায় এসব কথা বলেন।
উদ্বোধকের বক্তব্যে ড. অনুপম সেন আরো বলেন, ‘একাত্তরের মুক্তিযুদ্ধের বিপুল রক্তক্ষরণে অর্জিত স্বাধীনতা আমাদের দিয়েছে অহংকার ও মানুষের প্রত্যাশিত অধিকার।
তিনি আরও বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভাষণ পৃথিবীর শ্রেষ্ঠতম ভাষণ। এই ভাষণের মধ্য দিয়ে নিরস্ত্র বাঙালি সশস্ত্র জাতিতে পরিণত হয়। বাঙালি স্বাধীনতা অর্জনের পথে এগিয়ে যায়।
বৈশাখী এ মিলনমেলায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান নওফেল বলেন, ‘পহেলা বৈশাখ বাংলাদেশের চিরন্তন উৎসব। বাঙালির সংস্কৃতির ঐতিহ্য পহেলা বৈশাখ আমাদের আপন শিখরে প্রেম শক্তিতে উজ্জীবিত হওয়ার দিন। বাঙালির প্রাণের উৎসবের দিন।
নওফেল আরো বলেন, ‘অনেক বাধা ও প্রতিকূলতা ডিঙিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ সামনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে। এই অভিযাত্রা অব্যাহত রাখতে ২০১৯ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগকে আবারো ক্ষমতায় প্রতিষ্ঠিত করতে এখন থেকেই নির্বাচনমুখী কার্যক্রম শুরু করতে হবে।
তিনি বলেন, ‘শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ এখন বিশেষ উন্নয়নের রোল মডেল। এই অর্জনকে ধরে রাখার জন্য জনকল্যাণমুখী রাজনৈতিক ধারা অব্যাহত রাখতে হবে।’
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুকের সঞ্চালনায় বৈশাখী মিলন মেলায় আরো বক্তব্য রাখেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন, আলতাফ হোসেন চৌধুরী বাচ্চু, চট্টগ্রাম মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি হাসিনা মহিউদ্দিন, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহমেদ ইমু, সাধারণ সম্পাদক নুরুল আজিম রনি প্রমুখ।