শান্তিহাটে বিস্ফোরক মামলা

এনামসহ দক্ষিণ জেলা বিএনপির ১৪ জন কারাগারে

নিজস্ব প্রতিনিধি, পটিয়া

বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার মামলার রায় ঘোষণার আগের পটিয়া উপজেলার শান্তিরহাট এলাকায় বিস্ফোরক ও ককটেল নিক্ষেপ মামলায় দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এনামুল হক এনামসহ ১৪ জন নেতাকর্মীকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রোববার দুপুরে চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদুল্লাহ কায়ছারের আদালতে আত্মসমর্পণ করতে গেলে বিচারক শুনানি শেষে জামিন নামঞ্জুর করে তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এনামুল হক এনাম ছাড়া অন্যরা হলেন আবুল হোসেন বাবুল, খাইরুল আমিন বাবুল, মো. আলী, মো. সোলাইমান, মো. মনোয়ার, মো. জাকারিয়া, মো. শাহজাহান, আনোয়ার হোসেন মনজু, নজরুল ইসলাম, আবদুস শুক্কুর, এরশাদুজ্জামান, মো. নাসির, মো. শরীফ। একই মামলায় পটিয়ার সাবেক এমপি গাজী মো. শাহজাহান জুয়েল সমর্থিত ৪১ জন নেতাকর্মী হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিনে এলেও তাদের মামলার পরবর্তী শুনানি ৩০ এপ্রিল। ওই মামলায় এজাহারনামীয় ৮৯ জন ও অজ্ঞাতনামা ২৫০জন আসামি রয়েছে।
জানা গেছে, বিএনপির চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়া এতিমদের টাকা আত্মসাৎ করার মামলা যেদিন রায় ঘোষণা করা হবে তার আগের দিন পটিয়া থানায় একটি বিস্ফোরক মামলা রেকর্ড হয়। এতে পটিয়ার সাবেক সংসদ সদস্য গাজী মো. শাহজাহান জুয়েল ও দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এনামুল হক এনামসহ ৮৯জন এজাহাজার নামীয় ও অজ্ঞাতানামা ২৫০জনের বিরুদ্ধে থানায় মামলা রেকর্ড হয়। এতে দক্ষিণ জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি এনামুল হক এনামও আসামি।
পটিয়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক খোরশেদ আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।