সাতকানিয়ায় আগুনে পুড়ল ২৪ বসতঘর

নিজস্ব প্রতিনিধি, সাতকানিয়া

সাতকানিয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ২৪টি বসতঘর পুড়ে গেছে। অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেছে ২টি গবাদি পশু। গত শনিবার দিবাগত রাত ১টায় উপজেলার নলুয়া ইউনিয়নের পূর্ব গাটিয়াডাঙ্গা ৬ নম্বর ওয়ার্ড বিল্লাপাড়া সৈয়দ চকিদারের বাড়ি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।
জানা যায়, গভীর রাতে রান্না ঘরের চুলা থেকে আগুনের সূত্রপাত হলে মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে। শত চেষ্টা করেও এলাকাবাসীর পক্ষে বসতঘর রক্ষা করা সম্ভব হয়নি।
ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরের মালিকরা হলেন মো. সরওয়ার হোসেন, মো. মোরশেদ আলম, মোহাম্মদ মামুন, আবদুল আলম, আবদুর রহিম, আবদুল হাফেজ, আবদুল মান্নান, মোস্তাক আহমদ, ছগির আহমদ, মোহাম্মদ হানিফ, মো. ইসমাইল, মো. মিজানুর রহমান, সিরাজুল ইসলাম, মোহাম্মদ ইদ্রিস, জসিম উদ্দিন, আবদুর রহিম, মোহাম্মদ সাইমুন, নাজিম উদ্দিন, হারুন অর রশিদ, নজির হোসেন, বদি আলম, হাসনত আরা বেগম, আবদুল আলম ও নুরুল ইসলাম প্রকাশ নুরু সওদাগর।
ক্ষতিগ্রস্ত আবদুল হাফেজ জানান, অগ্নিকাণ্ডের কারণে কেউ কিছু বের করতে পারেনি। গোয়ালের গরুটি পর্যন্ত বের করার সুযোগ হয়নি। এ সময় আগুন নেভাতে গিয়ে মো. মোরশেদসহ ৩ জন আহত হন।
ক্ষতিগ্রস্তরা জানান, নগদ অর্থ, স্বর্ণ, ইলেকট্রনিক্স মালামাল, আসবাবপত্র ও মূল্যবান কাপড় চোপড়সহ সব মিলিয়ে আনুমানিক প্রায় কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে।
স’ানীয় ইউপি সদস্য আবু সালেহ বলেন, আমি ঘটনাস’লে গিয়ে ক্ষতিগ্রস্তদের তালিকা প্রস’ত করেছি। ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলায় নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রেরণ করা হবে।

সাতকানিয়া ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের সহকারী স্টেশন অফিসার মো. ইদ্রিস জানান, চুলার আগুন থেকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়ে বৈদ্যুতিক সঞ্চালন লাইনে আগুন ধরে যাওয়ার কারণে কেউ কাছে যেতে পারেনি। ফায়ার সার্ভিসের লোকজন যাওয়ার পর কোন রকমে আগুন নেভাতে সক্ষম হয়।
উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবারক হোসেন বলেন, অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়েছি, স’ানীয় ইউনিয়ন পরিষদের তালিকা পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস’া নেয়া হবে।