চকরিয়ায় মৎস্য প্রকল্পে বিষ প্রয়োগ

স্বপ্নভঙ্গ তরুণ উদ্যোক্তার

নিজস্ব প্রতিনিধি, চকরিয়া

কঙবাজারের চকরিয়ায় রাতের আঁধারে একটি মৎস্য প্রকল্পে বিষ দিয়ে প্রায় ১১লাখ টাকার মূল্যের মাছ মেরে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার ঢেমুশিয়া ইউনিয়নের ছয় কুড়িটিক্কা গ্রামের সরওয়ার আলমের মৎস্য প্রকল্পে। শুক্রবার সকালে প্রকল্পের পুকুরের সব মাছ মরে ভেসে উঠে। এ ঘটনায় মৎস্য প্রকল্পের মালিক চকরিয়া থানার ওসিকে অবহিত করেছেন বলে জানান।সরওয়ার আলম জানান, বৃহস্পতিবার রাতে তার মৎস্য প্রকল্পের ৫টি পুকুরের মধ্যে একটি পুকুরে শত্রুতা করে কে বা কারা বিষ ঢেলে দিয়েছে। পরদিন সকালে প্রকল্পে গেলে দেখতে পান ওই পুকুরের সব মাছ মরে ভেসে উঠেছে। এতে তাঁর ১১লাখ টাকার মাছ মরে গেছে বলে জানান তিনি। সরওয়ার আলম জানান, তিনি এক বছর আগে ঢেমুশিয়া ইউয়িননের ছয় কুড়িটিক্কা গ্রামে ৮ কানি জমি নিয়ে ৫টি পুকুর খনন করে এই মৎস্য প্রকল্প তৈরি করেন। ওই প্রকল্প থেকে এ বছর প্রথম দফায় ১৮লাখ টাকা মূল্যের পাংগাস, নাইলেটিকা ও কার্প মাছ বিক্রি করেন। প্রথম পর্যায়ে ওই পরিমাণ টাকার মাছ বিক্রি করতে পারায় ২য় পর্যায়ে আরও অধিক লাভের আশায় ২২লাখ টাকা বিনিয়োগ করেন। দ্বিতীয় পর্যায়ের মাছ বড় হলে বিক্রি করার মুহুর্তেই এই শত্রুতা। তিনি জানান, অনেক টাকা ধার করে এই প্রকল্প তৈরি করা হয়েছে। এক সাথে প্রায় ১১লাখ টাকার মাছ মেরে ফেলার ফলে এখন তার স্বপ্নভঙ্গ হয়েছে। তার অন্যান্য পুকুর গুলোতেও এ ঘটনা ঘটতে পারে বলে তিনি আশংকা প্রকাশ করছেন। শুক্রবার সকাল পর্যন্ত তিনি একটি পুকুর থেকে প্রায় ৭০মণ মরা মাছ তুলেছেন বলে জানিয়েছেন। চকরিয়া থানার ওসি মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী বলেন, বিষ প্রয়োগে মাছ নিধনের ঘটনাটি মালিক অবগত করেছেন। তবে লিখিত অভিযোগ পেলে জড়িতদের বিরুদ্ধে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস’া নেওয়া হবে।