বাগীশ্বরী সঙ্গীতালয়ের বর্ষপূর্তিতে সঙ্গীতানুষ্ঠান

মনকে শুদ্ধ করে সঙ্গীত : অনুপম সেন

বিজ্ঞপ্তি

প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিশিষ্ট সমাজবিজ্ঞানী প্রফেসর ড. অনুপম সেন বলেন, মনকে শুদ্ধ করে সঙ্গীত। সঙ্গীতচর্চা সুখের সন্ধান দেয়। অসি’র সময়ে শান্তির পরশ পেতে সুস’ সাংস্কৃতিক চর্চার বিকল্প নেই। বাগীশ্বরী সঙ্গীতালয় গত তের বছর ধরে শুদ্ধ সঙ্গীত চর্চায় যে ভূমিকা রেখেছে তা প্রশংসনীয়।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রামের ভারতীয় সহকারী হাই কমিশনার অনিন্দ্য ব্যানার্জী বলেন, শিশুদের পরিপূর্ণ মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে শিক্ষার পাশাপাশি সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডে যুক্ত রাখতে হবে। এতে করে শিশুরা নৈতিক অবক্ষয় থেকে মুক্ত থেকে সুন্দর ভবিষ্যৎ রচনা করতে পারবে। অসাম্প্রদায়িক সাংস্কৃতিক চর্চা সমাজ পরিবেশ সুসংগঠিত করে দেশের কল্যাণে শান্তি ও উন্নতি করা যায়। বাগীশ্বরী সঙ্গীতালয়ের ১৩ বছর পূর্তি উপলক্ষে গুণিজন সংবর্ধনা ও মনোজ্ঞ সঙ্গীতানুষ্ঠান গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম থিয়েটার ইনস্টিটিউটে অনুষ্ঠিত হয়। বাগীশ্বরী সঙ্গীতালয়ের সভাপতি কৈলাশ বিহারী সেনের এতে সংবর্ধিত অতিথি ছিলেন কবি অরুণ দাশগুপ্ত, বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রামের আঞ্চলিক পরিচালক এসএম আবুল হোসেন। বিশেষ অতিথি ছিলেন আর্য সঙ্গীতের উপাধ্যক্ষ ওস্তাদ নির্মলেন্দু চৌধুরী। স্বাগত বক্তব্য রাখেন বাগীশ্বরী সঙ্গীতালয়ের পরিচালক রিষু তালুকদার। ডা. সুপণ বিশ্বাসের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন প্রকৌশলী সুমন সেন, যীশু সেন, সমীরণ সেন, দোলন দাশ, জুয়েল চৌধুরী, পলাশ দে, টিটন ধর প্রমুখ।