হজযাত্রী কল্যাণ পরিষদের সভা

পাহাড়তলী হাজী ক্যাম্প জরুরিভিত্তিতে চালু হোক

বিজ্ঞপ্তি

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনার আলোকে পাহাড়তলী হাজী ক্যাম্পকে চট্টগ্রাম বিভাগীয় হজ অফিস হিসেবে জরুরিভিত্তিতে চালু করার দাবি জানায় হজযাত্রী কল্যাণ পরিষদ। হজযাত্রী কল্যাণ পরিষদ বিভিন্নভাবে পাহাড়তলী হাজীক্যাম্পের প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতে পারায় এবং প্রধানমন্ত্রী চট্টগ্রামবাসীর এ প্রাণের দাবিকে মূল্যায়ন করে গুরুত্বসহ প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেয়ায় আল্লাহর শুকরিয়া জানিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চট্টগ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করা হয়। পাহাড়তলী হাজীক্যাম্পে পাকিস্তান আমলের অবকাঠামোগুলো জরাজীর্ণ ভবন হলেও সমপ্রতি ইসলামিক ফাউন্ডেশন নির্মিত দু’টি বহুতল ভবন থেকে অব্যবহৃত একটি ব্যবহার করে চট্টগ্রাম বিভাগীয় উপ-হজ অফিস হিসেবে অতিসত্বর চালু করা যায়। হজযাত্রী কল্যাণ পরিষদের ১১ মার্চ সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম মহানগরীর স্টেশন রোডের হোটেল প্যারামাউন্ট ইন্টারন্যাশনালে অনুষ্ঠিত সভায় এ দাবী জানানো হয়। পরিষদের সভাপতি আহমদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিষদের মহাসচিব অধ্যক্ষ ডা. আবদুল করিম।
ডা. সালেহ আহমেদ সুলেমানের সঞ্চালনে বক্তব্য রাখেন প্রফেসর ড. এ কে এম সাইফুদ্দিন, অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ কফিল উদ্দিন চৌধুরী, আবু মুহাম্মদ নুরুল ইসলাম, আলহাজ মোহাম্মদ শরীফ, আলহাজ কামাল উদ্দিন আহাম্মদ, আহাম্মদ হোসাইন চৌধুরী, অধ্যক্ষ দীন মোহাম্মদ মানিক, অ্যাডভোকেট ডা. মো. ছমি উদ্দিন, এম এম আবদুল লতিফ, অধ্যক্ষ ডা. নুরুল আমিন প্রমুখ। প্রতিবারের মতো আগামী ৭ জুলাই নগরীর রীমা কনভেনশন সেন্টারে হজ্ব প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত হবে।