খাগড়াছড়ি বান্দরবানসহ ৫ জেলার উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

মহিলা সদস্যদের শপথ গ্রহণ সার্কিট হাউসে

সুপ্রভাত ডেস্ক

চট্টগ্রাম বিভাগের পাঁচ জেলা ব্রাহ্মণবাড়িয়া, চাঁদপুর, ফেনী, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান জেলার উপজেলা পরিষদসমূহের নির্বাচিত সংরক্ষিত আসনের মোট ৭৯ জন মহিলা সদস্যের শপথ গ্রহণ সম্পন্ন হয়। গতকাল সোমবার বিকেল ৩টায় চট্টগ্রাম সার্কিট হাউসে এ শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয় বলে এক বিজ্ঞপ্তিতে জানা যায়। এ সময় প্রধান অতিথি হিসেবে উপসি’ত থেকে পাঁচ জেলার ৩৬টি উপজেলার সংরক্ষিত আসনের মহিলা সদস্যদের শপথবাক্য পাঠ করান চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান। বিভাগীয় পরিচালক (স’ানীয় সরকার) দীপক
চক্রবর্তীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) শংকর রঞ্জন সাহা ও চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. মাশহুদুল কবির। উপসি’ত ছিলেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট উজালা রানী চাকমা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হাসান-বিন মোহাম্মদ আলী।
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার নাসিরনগর, আশুগঞ্জ, সরাইল, সদর, বিজয়নগর, আখাউড়া, কসবা ও নবীনগর উপজেলা, চাঁদপুর জেলার কচুয়া, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ, সদর, হাইমচর, ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি উপজেলা, ফেনী জেলার সদর, দাগনভূঁইয়া, সোনাগাজী, ফুলগাজী, ছাগলনাইয়া ও পরশুরাম উপজেলা, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার সদর, মহালছড়ি, দীঘিনালা, পানছড়ি, মাটিরাঙা, গুইমারা, রামগড়, লক্ষ্মীছড়ি উপজেলা এবং বান্দরবান পার্বত্য জেলার সদর, রোয়াংছড়ি, রুমা, থানচি, লামা ও আলীকদম উপজেলা পরিষদসমূহের নির্বাচিত সংরক্ষিত আসনের মোট ৭৯ জন মহিলা সদস্য শপথ নেন।
শপথ গ্রহণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিভাগীয় কমিশনার মো. আবদুল মান্নান বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ক্ষমতায় আসার পর নারীর ক্ষমতায়নে যে কাজগুলো করেছেন সেগুলো পৃথিবীর ইতিহাসে নজিরবিহীন। সরকার উপজেলা পরিষদের কার্যক্রমকে আরো বেগবান করতে নারীদের সম্পৃক্ত করে সামাজিক সম্মান দিয়েছেন। সিদ্ধান্ত, অংশগ্রহণ ও বাস্তবায়নই হচ্ছে ক্ষমতায়ন। প্রধানমন্ত্রীর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও আন্তরিকতা না থাকলে উপজেলা পরিষদে নারীদের অংশগ্রহণ ও শপথ নেয়া সম্ভব হতো না। তিনি নারীদের উন্নয়নে বহুমুখী সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছেন।
শপথ নেয়া মহিলা সদস্যদের উদ্দেশে তিনি বলেন, উপজেলা পরিষদের উন্নয়নে প্রত্যেক সদস্যকে সৎ ও নিষ্ঠার সাথে দায়িত্ব পালন করতে হবে। জনগণের ভোটে আপনারা নির্বাচিত হয়েছেন। উপজেলা পরিষদের আইন অনুযায়ী কাজ করতে হবে। সরকারি সেবা ও উন্নয়নের কথা জনগণের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে হবে। উপজেলা পরিষদের দায়িত্ব পালনকালে যাতে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সে ব্যাপারে প্রত্যেক মহিলা সদস্যকে সতর্ক থাকতে হবে।
শপথ গ্রহণ শেষে প্রত্যেক মহিলা সদস্যের হাতে ফুল তুলে দিয়ে স্বাগত জানান বিভাগীয় কমিশনার।