ছাত্রলীগ নেতা সোহেল খুন

রিমান্ড শেষে আসামি সাইফ কারাগারে

নিজস্ব প্রতিবেদক
saif

নগরের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা নাসিম আহমেদ সোহেল হত্যা মামলার আট নম্বর এজাহারভুক্ত আসামি সাইফ উদ্দিনকে এক দিনের রিমান্ড শেষে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। গতকাল মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. আরিফ হোসেন আসামি সাইফকে মহানগর হাকিম মাসুদ পারভেজের আদালতে হাজির করলে আদালত কারাগারে পাঠানোর এই আদেশ দেন।
নগর পুলিশের
উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী সুপ্রভাতকে বলেন, এক দিনের রিমান্ড শেষে আসামি সাইফ উদ্দিনকে আদালতে হাজির করলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা আরিফ হোসেন বলেন, এক দিনের রিমান্ডে আসামি স্বীকার করেন সে খুনের ঘটনায় জড়িত। ভিডিও ফুটেজেও তাকে কিল-ঘুষিও মারতে দেখা যায়।
আদালতসূত্রে জানা যায়, আসামি সাইফ উদ্দিন আদালতে আত্মসমর্পণ করলে পুলিশ গত ১৪ ফেব্রুয়ারি রিমান্ড আবেদন করেন। আদালত এক দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এরই প্রেক্ষিতে গত ২১ ফেব্রুয়ারি কারাগার থেকে তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য হেফাজতে নেয় পুলিশ।
গত বছর ২৮ মার্চ প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের বিবিএ অনুষদের ২৩তম ব্যাচের বিদায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি করাকে কেন্দ্র করে মহিউদ্দিন চৌধুরী ও আ জ ম নাছির পক্ষের বিরোধের জেরে মহিউদ্দিন চৌধুরীর পক্ষের ছুরিকাঘাতে নিহত হন নাসিম আহমেদ সোহেল। ঘটনার পরদিন নিহত সোহেলের বাবা অবসরপ্রাপ্ত সার্জেন্ট আবু তাহের ১৬ জনের নাম উল্লেখ করে মোট ৩৩ জনকে আসামি করে চকবাজার থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। ওই ঘটনাকে কেন্দ্র করে মামলার প্রধান আসামি ইব্রাহিম সোহানসহ ১৬ জনের সবাইকে স’ায়ীভাবে বহিষ্কার করে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। একইসাথে সাত আসামিকে সাময়িক বহিস্কারও করা হয়। ১৬ জন আসামির প্রায় সবাই প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের এলএলবি ও বিবিএর ছাত্র ছিলেন।