সংঘবদ্ধ দালালচক্র টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে

৫ শ কি. মিটার বিদ্যুৎ লাইন সম্প্রসারণ কাজ চলছে উখিয়ায়

রফিক উদ্দিন বাবুল, উখিয়া

পল্লী বিদ্যুৎ সম্পৃক্ত উখিয়ায় সংঘবদ্ধ দালালচক্রের হাতে প্রতারিত হচ্ছে অগণিত গ্রাহক। সরকার ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে উখিয়ার ৫ ইউনিয়নের প্রতিটি ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নির্দেশের ধারাবাহিকতায় উখিয়া পল্লী বিদ্যুৎ ৫ কিলোমিটার বিদ্যুৎ লাইন সম্প্রসারণের জন্য কাজ করছে। তবে বিদ্যুৎ দেওয়ার নামে কতিপয় দালালচক্র গ্রাহকদের নিকট থেকে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগের সত্যতা স্বীকার করে উখিয়া পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম বলেন, দালাল কর্তৃক প্রতারিত না হওয়ার জন্য মাইকিং ও লিফলেট বিতরণ করা হচ্ছে। উখিয়া পল্লীবিদ্যুৎ অফিসে গিয়ে দেখা যায়, অগণিত গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগ পাওয়ার জন্য হুমড়ি খেয়ে পড়ছে। অনেকেই দিনের পর দিন আসা-যাওয়া করতে করতে বিরক্ত হয়ে বিদ্যুৎ অফিস সংশ্লিষ্টদের প্রতি নেতিবাচক আচরণ করছে। এসময় রাজাপালং ইউনিয়নের দরগাহবিল এলাকার মীর আহমদ (৪০) জানান, তার এলাকায় প্রায় ৫শতাধিক ঘরে বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়ার নামে ঘর প্রতি ৫শ টাকা করে আদায় করা হয়েছে ৫ মাস আগে। গত কয়েকদিন আগে ওই এলাকায় পল্লী বিদ্যুতের কিছু খুঁটি ফেলে রাখা হলেও বিদ্যুৎ লাইন সম্প্রসারণের কোনো লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। সংঘবদ্ধ দালালচক্র তাদের নিকট থেকে ফের টাকা দাবি করছে বলে তিনি স’ানীয় সাংবাদিকদের জানালেও দালালচক্রের নাম জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।
এভাবে রাজাপালং ইউনিয়নের দুছড়ি, তুলাতলি, পূর্বচাকবৈঠা, বাগানপাড়া, হাতিমোরা, পূর্ব দরগাহবিল, খালকাচা পাড়া, উপকূলের জালিয়াপালং ইউনিয়নের মনখালী, চাকমাপাড়া, ছেপটখালী, মাদারবনিয়া, হলদিয়াপালং ইউনিয়নের পূর্ব পাতাবাড়ী, খেওয়াছড়ি, রত্নাপালং ইউনিয়নের পূর্ব তুলাতুলি, পূর্ব চাকবৈঠা, পালংখালী ইউনিয়নের তেলখোলা, মুছারখোলা, ধামনখালী, আঞ্জুমানপাড়াসহ প্রায় অর্ধশতাধিক গ্রামে এখনো বিদ্যুৎ পৌঁছেনি। এদিকে পালংখালী এলাকার বেশ কিছু পরিবার অভিযোগ করে জানান, ওই ইউনিয়নের একটি প্রভাবশালী দালালচক্র প্রতি ঘর থেকে ৫শ টাকা থেকে ১ হাজার টাকা পর্যন্ত চাঁদা আদায় করেছে বিদ্যুৎ সরবরাহ দেওয়ার নামে। অথচ এখনো পর্যন্ত তারা বিদ্যুৎ সংযোগ পায়নি।
এ প্রসঙ্গে আলাপ করা হলে উখিয়া পল্লী বিদ্যুতের ডিজিএম মো. সালাউদ্দিন জোয়ার্দার জানান, বিদ্যুৎ সংযোগ পেতে কাউকে টাকা দিতে হবে না। সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী ২০১৮ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে প্রতি ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেওয়ার লক্ষে উখিয়া পল্লী বিদ্যুৎ কাজ করছে। তাই দালাল কর্তৃক প্রভাবিত না হওয়ার জন্য মাইকিং ও গণসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।