‘৫ বছরে দেশের সফলতা হবে কল্পনাতীত’

সুপ্রভাত ডেস্ক

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশবাসীর প্রত্যাশার প্রতিফলন হয়েছে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, দেশ কার হাতে পরিচালিত হবে সে বিষয়ে জনগণ সুস্পষ্ট রায় দিয়েছে। আগামী পাঁচ বছরে দেশ এতোটাই সফল হবে, যা কল্পনাও করা যাবে না। খবর বাংলানিউজের।
নির্বাচনে বর্তমান সরকারের বিজয় উপলক্ষে বুধবার রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের (এনইসি) সম্মেলনকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ কথা বলেন। আওয়ামী লীগকে নির্বাচিত করায় ভোটারদের ধন্যবাদ জানিয়ে মুস্তফা কামাল বলেন, দেশ পরিচালিত করবে তারাই, যারা স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি এবং যারা উন্নয়ন করবে। জনগণ বিশ্বাস করতেন, যে উন্নয়ন প্রকল্প আমাদের হাতে রয়েছে, এই সরকার পরিবর্তন হলে প্রকল্পগুলো আর বাস্তবায়িত হবে না। অতীত অবস’া থেকে এটা আমরা বুঝতে পারি। দেশের মানুষ আমাদের আরেকবার সুযোগ দিয়েছে সেবা করার। আমরা সুযোগ পেলাম, চলমান প্রকল্প বাস্তবায়ন করার জন্য। এই নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের প্রত্যাশার মাত্রা অনেক বেড়েছে।
প্রধানমন্ত্রী কখনো ব্যর্থ হননি, এবারও ব্যর্থ হবেন না- এমন আশাবাদ জানিয়ে পরিকল্পনানমন্ত্রী বলেন, যত বড় প্রত্যাশার মাত্রাই দেশের মানুষের থাকুক, প্রধানমন্ত্রী সেই প্রত্যাশার লেভেল স্পর্শ করবেন। তার হাত ধরে আমরা আগামী পাঁচ বছরে এতোটাই সফল হবো, যা এই দেশের মানুষ কল্পনাও করতে পারবে না। নির্বাচনের কারণে আশঙ্কা ছিল যে ডিসেম্বরে মূল্যস্ফীতি বাড়বে, কিন’ বাড়েনি। নির্বাচনে দুধ ও চিনির প্রয়োজনীয়তাই সবচেয়ে বেশি হয়। কিন’ এ সময়ে এ দুটির দাম ছিল যে কোনো সময়ের তুলনায় কম। চিনির দাম গত ১০ বছরের মধ্যে বিশ্ববাজারে সবচেয়ে কম ছিল। গত মাসের তুলনায় চলতি অর্থবছরের ডিসেম্বর মাসে সাধারণ মূল্যস্ফীতির হার কমে হয়েছে ৫ দশমিক ৩৫ শতাংশ।
উন্নয়নের কারণেই দেশের মানুষ আওয়ামী লীগকে আবারও নির্বাচিত করেছে মন্তব্য করে মুস্তফা কামাল বলেন, আমার একটি কথা সত্য হয়েছে, আপনারা অনেকে বিভিন্ন সভায় বলতেন, নির্বাচন আর উন্নয়ন এক জিনিস নয়। উন্নয়ন দিয়ে নির্বাচনের ফলাফল বোঝা যাবে না। আমি তখন বলেছিলাম আপনাদের, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবচেয়ে সফল মানুষ এ দেশের। তিনি যে পরিমাণ উন্নয়ন করেছেন এদেশের মানুষের জন্য, সেই উন্নয়নের হাত ধরেই আমরা বিজয়ী হবো।