রিয়াজউদ্দিন বাজারে জোড়া খুনের মামলা

৩ দিনের রিমান্ডে অমিত মুহুরি

নিজস্ব প্রতিবেদক

নগরীর রিয়াজউদ্দিন বাজারে ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে সংঘটিত জোড়া খুনের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে যুবলীগ নামধারী সন্ত্রাসী অমিত মুহুরিকে তিনদিনের হেফাজতে নিতে অপরাধ তদন্ত বিভাগ সিআইডিকে অনুমতি দিয়েছেন চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম সাহাদাৎ হোসেন ভূঁইয়া। গতকাল বুধবার এ আদেশ দেন তিনি।
তদন্ত কর্মকর্তা সিআইডি’র পরিদর্শক হাবিবুর রহমান জানান, রিয়াজউদ্দিন বাজারে সংঘটিত জোড়া খুনের মামলায় অমিত মুহুরি জড়িত থাকার তথ্য পাওয়ার পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে সাতদিনের রিমান্ডের আবেদন জানিয়েছি। আদালত তিনদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন।
এর আগে অমিত মুহুরিকে জোড়া খুনের মামলায় গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। ২০১৩ সালের ফেব্রুয়ারিতে রিয়াজউদ্দিন বাজারে হিরু ও আরমান নামে দুই যুবক খুন হয়। এ ঘটনায়
মামলা হয় কোতোয়ালি থানায়। তবে এজাহারে অমিত মুহুরির নাম ছিল না। হিরু পটিয়া উপজেলার মোজাফফরবাদের আবদুর রহিমের ছেলে ও আরমান লোহাগাড়া আমিরাবাদ এলাকার মো. ইদ্রিসের ছেলে।
প্রসঙ্গত, গত ১৩ আগস্ট নগরীর কোতোয়ালি থানার এনায়েত বাজার রানীর দিঘি থেকে সিমেন্ট ঢালাই করা ড্রামের ভেতর থেকে ইমরানুল করিম ইমন নামের এক যুবকের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এর আগে ৯ আগস্ট নন্দনকানন ৩ নম্বর গলির হরিশ দত্ত লেইনে বেঙ্গল হোল্ডিংয়ের ষষ্ট তলায় অমিতের বাসায় ইমনকে হত্যা করা হয়। ১২ আগস্ট ড্রামে ভরে চুন, এসিড দিয়ে সিমেন্ট ঢালাই করে সেই ড্রাম ফেলে দেয়া হয় রানীর দিঘিতে। এ ঘটনায় দায়ের হওয়া মামলায়ও প্রধান আসামি অমিত মুহুরি।