হিলিতে পেঁয়াজের দাম কমেছে ৩-৪ টাকা

বাংলা ট্রিবিউন

হিলি স’লবন্দরে একদিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ৩ থেকে ৪ টাকা করে। ভারত থেকে আসা পেঁয়াজের মূল্য কমায় ও বাজারে দেশি পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ার কারণে এ দাম কমেছে।
গতকাল রবিবার সরেজমিন হিলি স’লবন্দর ঘুরে দেখা যায়, ভারত থেকে আমদানিকৃত ইন্দোর নাসিক জাতের পেঁয়াজ প্রকারভেদে পাইকারিতে (ট্রাকসেল) ৪২ টাকা থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। একদিন পূর্বে এসব জাতের পেঁয়াজ পাইকারিতে ৪৬ টাকা থেকে ৪৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছিল।
এদিকে বাংলাহিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভারত থেকে আমদানিকৃত পেঁয়াজ খুচরাতে প্রকারভেদে ৪০ টাকা থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। যা একদিন আগেও ৫০ থেকে ৫৫টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছিল। আর দেশী জাতের পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫টাকা কেজি দরে।
হিলি স’লবন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারক মো. হারুন উর রশীদ হারুন ও মামুনুর রশীদ লেবু জানান, বন্দর দিয়ে নতুন মূল্যে পেঁয়াজ আমদানি শুরু হওয়ার ফলে ইতোমধ্যেই দেশের বাজারে পেঁয়াজের দামের উপর প্রভাব পড়েছে। যে পেঁয়াজ একদিন আগে ৪৬ থেকে ৪৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়েছে সেই পেঁয়াজ এখন ৪২ থেকে ৪৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে।
এদিকে বাজারে দেশি জাতের পেঁয়াজের সরবরাহ বাড়ার ফলে দামের উপর একটা প্রভাব পড়েছে। বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি অব্যাহত থাকলে আশা করছি আগামী পনের দিনের মধ্যে পেঁয়াজের দাম আরও কমে আসবে।