উপজেলা পরিষদ নির্বাচন

হাটহাজারীতে পরাজিত প্রার্থীর কর্মীদের তা-ব

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাটহাজারী

হাটহাজারী উপজেলায় গতকাল সোমবার ভাইস চেয়ারম্যান পদে নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এম এ খালেদ চৌধুরী নির্বাচনী ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে তার কর্মী সমর্থকদের নিয়ে হাটহাজারী-অক্সিজেন মহাসড়কের চবির ১ নম্বর সড়ক ও বাসস্টেশন এলাকায় টায়ার জালিয়ে অবরোধ সৃষ্টি করে। এসময় চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি ও চট্টগ্রাম-রাঙামাটি সড়কে ১ ঘণ্টা যানচলাচল বন্ধ ছিলো। এসময় যাত্রীদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হয়। অন্যদিকে খালেদের কর্মী সমর্থকরা চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলাকার ১ নম্বর গেইটস’ সড়কে টায়ার জালিয়ে প্রতিবাদ করে। এসময় প্রায় ১০টি গাড়ি ভাংচুর করা হয়। নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করে র্যাব-৭ এর কর্মকর্তারা যাওয়ার সময় সড়কটি চালু করার চেষ্ট করে। এসময় অবরোধকারীদের সাথে সংঘর্ষ বাঁধে। এতে তিনজন আহত হন। তবে, তাৎড়্গণিকভাবে আহতদের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এসময় স’ানীয়দের মধ্যে আতংক দেখা দেয়। তখন আইনশৃংখলা বাহিনী কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে পরিসি’তি নিয়ন্ত্রণে আনে। রাত ৯ টা ৩৫ মিনিটে পর্যাপ্ত সংখ্যক পুলিশ ও র্যাব এসে অবরোধ সরিয়ে দিলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয়। কিন’ অবরোধকারীরা অবরোধ তুলে নিলেও তারা বাসস্টেশন এলাকার গোলচত্বরে অবস’ান নেয়।
হাটহাজারী মডেল থানার ওসি বেলাল উদ্দিন জাহাঙ্গীর সাংবাদিকদের বলেন, পরাজিত প্রার্থীর কর্মী সমথকেরা বাসস্টেশন এলাকায় মহাসড়ক অবরোধ সৃষ্টির করে। পরে সংবাদ পেয়ে পুলিশ ঘটনাস’লে গিয়ে অবরোধ তুলে নিলে গাড়ি চলাচল স্বাভাবিক হয় বলে তিনি উলেস্নখ করেন। তবে চবি ১ নম্বর গেইট এলাকার ঘটনা সম্পর্কে তিনি কিছু বলতে চাননি।
নির্বাচিত হলেন যাঁরা ঁ ২য় পৃষ্ঠার ৫ম কলাম
ঁ ১ম পৃষ্ঠার পর

সারাদেশের মতো হাটহাজারীতেও উপজেলা পরিষদ নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। গতকাল সোমবার নির্বাচন চলাকালীন কেন্দ্রে তেমন বড় ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি। নির্বাচনে চেয়ারম্যানপদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী এস এম রাশেদুল আলম বিনাপ্রতিদ্বন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।
উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, গতকাল সোমবার রাতে ভোট গণনা শেষে ভাইস চেয়ারম্যান পুরম্নষ পদে নুরম্নল আলম (মাইক প্রতীক) ২৩ হাজার ৯ শ ৪১ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী এম এ খালেদ চৌধুরী (বৈদ্যুতিক বাল্ব) ১৯ হাজার ৩ শ ৭৯ ভোট পেয়েছেন।
মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মোক্তার বেগম (কলস প্রতীক) ৩০ হাজার ৫ শ ১৮ ভোট পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী সাজেদা বেগম (হাঁস) ১৮ হাজার ৬ শ ৭৫ ভোট পেয়েছেন। অন্যন্যা ভাইস চেয়ারম্যান প্রাথীরা যথাক্রমে উদয় কুমার সেন (তালা) ৪ হাজার ১ শ ৭৮, মোহাম্মদ জামাল উদ্দিন (উড়োজাহাজ) ১ হাজার ৭ শ ৭৩, কাজী মোহাম্মদ আলাউদ্দিন আজাদ (চেয়ার) ৬ শ ১৬, সৈয়দ মোসত্মাফা আলম (নলকুপ) ১ শ ৫৩ ভোট পেয়েছেন।