হলদিয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

নিজস্ব প্রতিনিধি, রাউজান

রাউজানের হলদিয়ায় বিদ্যুৎ সংযোগকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হয়েছে।গত ১২ সেপ্টেম্বর বুধবার দুপুর পৌনে একটায় রাউজানের হলদিয়ার ভট্টপাড়ায় এই ঘটনা ঘটে। হলদিয়া ইউনিয়নের আমির হাটের পুর্ব পাশে ভট্ট পাড়ায় মনিন্দ্র লাল ভট্টাচার্যের বসতভিটার উপর দিয়ে প্রতিবেশি স্বপন দে, রতন দে, অপু ঘোষ, নিপু ঘোষ, সুমন ঘোষ তাদের বাড়িতে বিদ্যুৎ লাইন নিতে চাইলে হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রুনু ভট্টচার্যের পিতা মনিন্দ্র লাল ভট্টচার্য বাধা দেয় ।

এসময়ে প্রতিবেশী স্বপন দে, রতন দে, অপু ঘোষ, নিপু ঘোষ, সুমন ঘোষসহ তাদের পরিবারের সদস্যরা দা লাঠি নিয়ে ৮৫ বছরের মনিন্দ্র লাল ভট্টাচার্যের উপর হামলা করে । এসময় মনিন্দ্র লাল ভট্টাচার্যকে হামলা থেকে রক্ষা করতে নাতি মিন্টু ভট্টাচার্য, বাবলা ভট্টচার্য ও তাদের মাতা শিখা রানি ভট্টাচার্য দৌড়ে আসলে তাদের উপর হামলা করে তারা। হামলার ঘটনার সংবাদ পেয়ে রাউজান উপজেলা সদর থেকে মনিন্দ্র লাল ভট্টচার্যের পুত্র হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি রুনু ভট্টচার্য ঘটনাস’লে পৌঁছলে তার উপরও হামলা করে প্রতিবেশিরা । হামলার ঘটনায় মনিন্দ্র ভট্রচার্য, শিখা রাণী ভট্রচার্য মিন্টু ভট্রচার্য্য, বাবলা ভট্টচার্য ও রুনু ভট্টচার্য আহত হয় ।

স্থানীয়রা আহত ৫জনকে রাউজান উপজেলা স্বাস’্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়। হামলার ঘটনায় আহত রুনু ভট্টাচার্য বলেন. আমার বসত ভিটার উপর দিয়ে প্রতিবেশী স্বপন দে, রতন দে, অপু ঘোষ, নিপু ঘোষ, সুমন ঘোষ সহ তাদের পরিবারের সদস্যরা তাদের বাড়িতে জোরপুর্বক বিদ্যুৎ লাইন নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে আমার বৃদ্ধ পিতা বাধা দিলে প্রতিবেশী স্বপন দে, রতন দে, অপু ঘোষ, নিপু ঘোষ, সুমন ঘোষ সহ তাদের পরিবারের সদস্যরা আমার ৮৫ বৎসর বয়সের পিতা মনিন্দ্রলাল ভট্টচার্য ও আমার পরিবারের সদস্যদের উপর হামলা করে । ঘটনার সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস’লে উপসি’ত হলে আমাকে মারধর করে । ঘটনার ব্যাপারে রাউজান থানার সেকেন্ড অফিসার এস আই নুর নবীর কাছে জানতে চাইলে এস আই নুর নবী বলেন, ঘটনার সংবাদ পেয়ে পুলিশ আহতদের দেখতে হাসপাতালে যায় ।