হজ ভিসার জন্য আবেদন করেননি ৬০৬ জন

সুপ্রভাত ডেস্ক

নিবন্ধন করার পরও হজের ভিসার জন্য আবেদন না করায় এ বছর হজে যেতে পারছেন না ৬০৬ জন। গতকাল সকালে রাজধানীর আশকোনায় হজ ক্যাম্পে শেষ হজ ফ্লাইট উপলক্ষে সংবাদ সম্মেলনে ধর্মমন্ত্রী মতিউর রহমান এ তথ্য জানান।
যাত্রী স্বল্পতায় কয়েকটি হজ ফ্লাইট বাতিলের পর চলতি মাসের শুরুতে কিছু শর্ত দিয়ে হজযাত্রী প্রতিস’াপন আট শতাংশ বাড়িয়ে ১৫ শতাংশ করার ঘোষণা দেয় সরকার। খবর বিডিনিউজের।
ধর্মমন্ত্রী বলেন, ‘১০ হাজার ৯৪২ জনের প্রতিস’াপন করার আবেদনের বিপরীতে ১০ হাজার ৭৭৪ জনকে প্রতিস’াপন করেছি। ৬০৬ জন নিবন্ধন করার পরও ভিসার জন্য আবেদন না করায় এই সংখ্যা যেতে পারছে না।’

গুরুতর অসুস’, মৃত্যুজনিত কারণে অনেকে নিবন্ধন করার পরও হজে যেতে পারেন না। সেটা প্রতিস’াপনের মাধ্যমে পূরণ করা হয়হজ এজেন্সিগুলোর অবহেলা আর অনাগ্রহের কারণে টিকেট অবিক্রিত থাকা ও ভিসা নিয়ে এই পরিসি’তির সৃষ্টি হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কিছু এজেন্সির বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়া গেছে, ফিরে এসে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস’া নেওয়া হবে।’

এখন পর্যন্ত এক লাখ ২১ হাজার ৮৬৮ জন হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ‘বাকিরা ১৭ আগস্টের মধ্যে সৌদি পৌঁছাবেন।’

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘অসুস’তা ও মৃত্যুজনিত কারণ ছাড়াও আর্থিক লেনদেন নিয়ে এজেন্সিগুলোর সাথে বনিবনা না হওয়ায় এজেন্সিগুলো ভিসার জন্য আবেদন করেনি।’
ভিসার জন্য আবেদন না করলে মন্ত্রণালয়ের করার কিছু থাকে না বলে জানান ওই কর্মকর্তা। এ বছর ভিসার আগেই সব এজেন্সিকে নিজ নিজ যাত্রীদের টিকিট সংগ্রহের আহ্বান জানানো হয়।
সংবাদ সম্মেলনে ধর্ম সচিব মো. আনিছুর রহমান, হাব মহাসচিব শাহাদাত হোসেন তসলিম উপসি’ত ছিলেন।
গত ১০ আগস্ট হজ অফিসের পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, নিবন্ধন করলেও ভিসা জটিলতা, অসুস’তা এবং ‘ব্যক্তিগত কারণে’ বাংলাদেশ থেকে এবার ৬২৭ জন হজে যেতে পারছেন না। গত ১৪ জুলাই শুরু হয় হজ ফ্লাইট। ২৭ আগস্ট হজের ফিরতি ফ্লাইট শুরু হয়ে ২৫ সেপ্টেম্বর তা শেষ হবে।