চসিক প্রকৌশল বিভাগের সমন্বয় সভায় মেয়র

সড়ক সংস্কারে আন্তরিক হতে হবে প্রকৌশলীদের

নিজস্ব প্রতিবেদক

প্রকৌশল বিভাগের কার্যক্রমের ওপর সিটি করপোরেশনের সুনাম ও সুখ্যাতি অনেকটা নির্ভর করে। এ বিষয় অনুধাবন করে প্রকৌশলীদের আরো দায়িত্ব নিয়ে জনস্বার্থে সড়ক সংস্কারে আন্তরিক ভূমিকা রাখতে হবে।
গতকাল রোববার দুপুরে চসিক সম্মেলন কক্ষে প্রকৌশল বিভাগের সমন্বয় সভায় মেয়র আ জ ম নাছির এসব কথা বলেন।
সমন্বয় সভায় তিনি আরো বলেন, ‘জোয়ারের উচ্চতা বৃদ্ধি পাওয়া, কাপ্তাই বাঁধের পানি ছাড়া ও টানা অতি বর্ষণের কারণে নগরীর প্রায় সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়। ফলে জনসাধারণের চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। তাই জনদুর্ভোগ লাঘবে সিটি করপোরেশনের পক্ষ থেকে দ্রুত সড়কগুলো মেরামত করা হবে। ভারী বৃষ্টিপাত এবং জোয়ারের পানির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত নগরীর সড়কগুলো দ্রুত মেরামত এবং সংস্কার শেষে স’ায়ীভাবে উন্নয়ন করে নগরবাসীর চলাচলের পথ সুগম করা হবে।’
মেয়র চসিকের সিটি গভর্নেস প্রকল্পের চলমান কাজে আশানুরূপ অগ্রগতি না হওয়ায় অসন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি প্রকৌশলীদের বলেন, ‘আপনারা নিশ্চয় নগরীর সড়কগুলোর দুরাবস’া দেখেছেন। প্রায় সড়কই ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।’
তিনি জোন ও এরিয়া ওয়ারী দায়িত্বপ্রাপ্ত সকলকে নিজ নিজ এলাকায় সংস্কারকাজ দ্রুত শুরু করার নির্দেশ দেন। মেয়র করপোরেশনের সকল উন্নয়ন কাজের দরপত্র প্রক্রিয়া ৪৫ দিনের মধ্যে শেষ করতে বলেন।
এ প্রসঙ্গে মেয়র বলেন, ‘ইতোমধ্যে ১৯০ কোটি টাকার দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। শীঘ্রই আমরা আরো ২৫০ কোটি টাকার দরপত্র আহবান করবো।’
মেয়র আরো বলেন, জনস্বার্থে অ্যাসফল্ট প্ল্যান্টের মালামালের মাধ্যমে নগরীর ক্ষতিগ্রস্ত পোর্ট কানেকটিং রোড, আগ্রাবাদ এক্সেস রোড, ডিটি রোড, আরাকান রোড ও হাটহাজারী রোডের মেরামত করা হবে।
তিনি এস্টেট শাখার অধীনে যে সকল আয়বর্ধক প্রকল্পে অবকাঠামোগত কাজ অসমাপ্ত ও সমস্যা রয়েছে তা নিরসনে প্রকৌশলীদের প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তার সাথে আলাপ করে সমাধান করার নির্দেশ দেন।
সভায় অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার দেবদাস ভট্টাচার্য, চসিক প্রধান রাজস্ব কর্মকর্তা ড. মুহম্মদ মুস্তাফিজুর রহমান, উপপুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক বন্দর) সৈয়দ আবু সায়েম, টি আই ( বন্দর) আবুল কাশেম চৌধুরী, চসিক তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী রফিকুল ইসলাম, মাহফুজুল হক, আবু সালেহ, কামরুল ইসলাম, সিটি গভর্নেস প্রকল্পের প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম, নির্বাহী প্রকৌশলী অসীম বড়-য়া, এস এম আইয়ুব, বিপ্লব দাশ, আহমদুল হক, সাইফুর রহমান, ঝুলন কুমার দাশ, মো. ফরহাদুল আলম, আবু সাদাত মো. তৈয়বসহ সংশ্লিষ্ট প্রকৌশলীবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন।