স্পিনে আস্থা লেহম্যানের

সুপ্রভাত ক্রীড়া ডেস্ক
অনুশীলনে গতকাল বল করেন অফ স্পিনার অ্যাস্টন অ্যাগার। এ নতুন তারকাকেই প্রধান অস্ত্র হিসেবে উল্লেখ করেছেন কোচ লেহম্যান
অনুশীলনে গতকাল বল করেন অফ স্পিনার অ্যাস্টন অ্যাগার। এ নতুন তারকাকেই প্রধান অস্ত্র হিসেবে উল্লেখ করেছেন কোচ লেহম্যান

স্বাগতিক বাংলাদেশের বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে অজি দলের স্পিন আক্রমণে দেখা যেতে পারে তরুণ লেগি মিচেল সোয়েপসন ও বাঁহাতি স্পিন অলরাউন্ডার অ্যাস্টন অ্যাগারকে। বিষাক্ত অফস্পিনার নাথান লায়ন দলে থাকলেও মিরপুর টেস্টে সেরা একাদশে তাকে নামানোর তেমন ইতিবাচক ইঙ্গিত দিলেন না কোচ ড্যারেন লেহম্যান। খবর বাংলানিউজ’র।
গতকাল শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামের সম্মেলন কক্ষে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে তার আনুষ্ঠানিক আলাপচারিতা থেকে এমন ইঙ্গিত মিললো।
সংবাদ সম্মেলেনের শুরুতেই শিষ্য অ্যাস্টন অ্যাগারকে নিয়ে রীতিমতো প্রশংসায় মেতে উঠলেন গুরু লেহম্যান, ‘অ্যাগারের লাইন, লেংথ খুবই ভালো। গত বছর শেফিল্ড শিল্ড ম্যাচে সে দারুণ খেলেছে। বোলিংয়ের পাশাপাশি তার ব্যাটিংও অসাধারণ। আর ফিল্ডিংয়ে তার জুড়ি মেলা ভার।’
এ বছরের শুরুতে ভারতের বিপক্ষে সিরিজে ১৯ উইকেট নেওয়া ও’কিফের জায়গায় এসেছেন অ্যাগার। ওই সিরিজে ও’কিফ ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে না পারায় অ্যাগারের কাছে জায়গা হারিয়েছেন। তবে সাদা পোশাকে প্রায় চার বছর মাঠে নামা হয়নি এই অলরাউন্ডারের। ২০১৩ সালের অ্যাশেজের পর আর একটিও টেস্ট খেলেননি। তারপরেও তার উপর আস্থা হারাননি ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার নির্বাচকরা। বলে রাখা ভালো ২০১৩ সালের জুলাইয়ে নটিংহ্যামে অ্যাশেজ সিরিজ দিয়ে টেস্ট ফরমেটে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে পা রেখে রেখেছিলেন অ্যাগার। অভিষেকের পর এই পর্যন্ত মাত্র ২টি টেস্ট খেলেছেন তিনি। উইকেট সংখ্যাও আহামরি নয়, মাত্র ২টি।
মজার ব্যাপার হলো লেহম্যানের পছন্দের আরেক স্পিনার সোয়েপসন অ্যাগারের চেয়েও তরুণ এবং আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনভিজ্ঞ। বাংলাদেশর বিপক্ষে প্রথম টেস্টে সেরা একাদশে জায়গা পেলে এটিই হবে তার অভিষেক টেস্ট। তথাপিও তার ওপরে কোচের অগাধ আস্থা, ‘লেগ স্পিনার হিসেবে তার ভবিষ্যত উজ্জ্বল। ঘরোয়া ক্রিকেটে তার পারফরমেন্স ছিল অসাধারণ। উইকেট বিবেচনায় সে আমাদের অন্যতম বোলার হয়ে উঠতে পারে।’
লেগ স্পিনার মিচেল সোয়েপসনকে অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেট দলের ম্যানেজমেন্ট দলে ডেকেছেন শেষ সময়ে। ১৩ সদস্যের অজি দল ঘোষণার পর লেগ স্পিনারের প্রয়োজনীতা অনুভবপূর্বক তাকে দলে ভিড়িয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া।