সোমবার দেখা যাবে ‘পূর্ণ উ’ রক্তিম চাঁদ’

সুপ্রভাত ডেস্ক

সোমবার আবারও পৃথিবীর খুব কাছাকাছি আসছে চাঁদ। এদিন বড় আর রক্তিম রূপে চাঁদকে দেখতে পাবে উত্তর গোলার্ধের দেশগুলোর বাসিন্দারা। একে ডাকা হচ্ছে ‘পূর্ণ উ’ রক্তিম চাঁদ (সুপার বস্নাড উলফ মুন) নামে। তবে বাংলাদেশসহ এশিয়ার কোনও দেশে দেখা যাবে না এ রক্তিম চাঁদ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদন থেকে এসব কথা জানা গেছে। খবর বাংলাট্রিবিউনের।
চাঁদ পৃথিবীর সবথেকে কাছে চলে আসার দিনটিকে সুপারমুন আখ্যা দিয়ে থাকে জ্যোতির্বিজ্ঞান। এদিন স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে চাঁদকে বেশি বড় দেখায়। পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণের সময় চাঁদ কখনও পুরোপুরি অন্ধকার হয় না। সূর্যের খানিকটা আলো পৃথিবী থেকে প্রতিসৃত হয়ে চাঁদে পৌছায় এবং চাঁদ রক্তিম বর্ণ ধারণ করে। এ ধরনের চাঁদকে বস্নাডমুন ডাকা হয়ে থাকে। জানুয়ারি মাসে দেখা যাওয়া পূর্ণ চাঁদকে ডাকা হয়ে থাকে উলফ নামে। আর এর সব কিছুরই সমন্বয় দেখা যাবে সোমবারের পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণে। এ চাঁদকে তাই সুপার বস্নাড উলফ মুন নামে ডাকা হচ্ছে।
দ্য গার্ডিয়ানের প্রতিবেদন অনুযায়ী, উত্তর গোলার্ধের মানুষ সোমবার সুপার বস্নাড উলফ মুন দেখতে পাবে। এদিন গ্রিনল্যান্ড, আইসল্যান্ড, আয়ারল্যান্ড, নরওয়ে, সুইডেন, পর্তুগাল এবং ফরাসি ও স্প্যানিশ উপকূলে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। আকাশ পরিষ্কার থাকলে উত্তর ও দড়্গিণ আমেরিকায়ও দৃশ্যমান হবে পূর্ণ চন্দ্রগ্রহণ। ইউরোপের বাকি অংশ ও আফ্রিকা থেকে আংশিকভাবে চন্দ্রগ্রহণ দেখা যাবে। তবে সোমবার সুপার বস্নাড মুন দেখার সুযোগ হবে না এশিয়া, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বাসিন্দাদের।
এ বছর দৃশ্যমান হতে যাওয়া তিনটি সুপারমুনের প্রথমটি এটি। উপবৃত্তাকার কড়্গপথে পৃথিবী থেকে চাঁদের নিকটতম অবস’ানকে অনুভূ বা পেরিজি বলা হয়। পৃথিবী থেকে চাঁদের গড় দূরত্ব ৩ লাখ ৮৪ হাজার ৪০২ কিলোমিটার। সোমবার দৃশ্যমান হতে যাওয়া চাঁদটির অবস’ান হবে ৩ লাখ ৫৭ হাজার ৩০০ কিলোমিটার দূরত্বে। ১৯ ফেব্রম্নয়ারি দৃশ্যমান হতে যাওয়া সুপারমুন আরও খানিকটা কাছাকাছি অবস’ান করবে। আর মার্চের সুপার সুপারমুন থাকবে আরও বেশি কাছাকাছি।