‘সৃজনশীল কাজের মধ্য দিয়ে মানুষ বেঁচে থাকে অনন্তকাল’

বিজ্ঞপ্তি

সৃষ্টিকর্ম ও সৃজনশীল কাজের মধ্য দিয়ে মানুষ বেঁচে থাকে যুগ যুগান্তর ধরে। সৃষ্টি আর কর্মকে বন্দনা করে স্মরণীয় ও বরণীয় হয়ে আসছেন কীর্তিমান মানুষেরা। মহাকবি নবীন চন্দ্র সেনের অমর কীর্তিগাথা ও সৃষ্টিশীল অবিনাশী কর্ম প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম আজীবন অনুপ্রেরণা যোগাবে। বাঙলা সাহিত্য ও সংস্কৃতির জগতের কীর্তিমান মহাকবি নবীন চন্দ্র সেন ছিলেন উজ্জ্বল ধ্রুবতারা। মহাকবি নবীন চন্দ্র সেনের ১৭২তম জন্মদিনের স্মরণ অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।
বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোট চট্টগ্রাম বিভাগীয় শাখা ও ওস্তাদ মোহন লাল দাশ স্মৃতি সংসদের যৌথ উদ্যোগে গতকাল বিকাল ৫ টায় সংগঠনের মোমিন রোডের কার্যালয়ে মহাকবি নবীন চন্দ্র সেনের ১৭২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে স্মরণ অনুষ্ঠান মাসুমা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন ওস্তাদ মোহন লাল দাশ স্মৃতি সংসদের সভাপতি স্বপন কুমার দাশ।
সভায় প্রধান অতিথি’র বক্তব্যে ওস্তাদ স্বপন কুমার দাশ বলেন, মহাকবি নবীন চন্দ্র সেন বাঙালির গৌরব ও কালের কীর্তিমান মহামানব। তাঁর অনুপম সৃষ্টিকর্ম ও সাহিত্যমালা জাতিকে যেমনি সমৃদ্ধ করেছে তেমনি বাঙালিকেও করেছে বিশ্বসাহিত্য এবং সংস্কৃতিতে মহিমান্বিত। বাঙালি জাতি যতদিন বাংলা ভাষাকে চর্চা করবে ও বাংলায় কথা বলবে ততদিন মহাকবি নবীন চন্দ্র সেনকে শ্রদ্ধায় স্মরণ করবে। জিয়াউর রহমানের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন এস.এম. লিয়াকত হোসেন, ডা. মো. জামাল উদ্দিন, টি. কে. সিকদার, স্বপন সেন, সুভাষ চৌধুরী টাংকু, অধ্যাপক সৈয়দ মিসবাহ উদ্দিন, কাজী সাইফুল ইসলাম, রাখাল চন্দ্র ঘোষ, কুতুব উদ্দিন রাজু, বাবর মুনাফ, মো. গোলাম রহমান, মো. শেখ সারুফ প্রমুখ।