স্মরণসভায় বক্তারা

সূর্য সেন ও এম এ আজিজ আজীবন দেশপ্রেমিক ছিলেন

চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদ আয়োজিত স্বাধিকার আন্দোলনের অগ্রদূত এবং ব্রিটিশবিরোধী সংগ্রামের বিপ্লবী বীর মাস্টারদা সূর্য সেন ও চট্টগ্রাম জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক চট্টল শার্দুল এম এ আজিজের স্মরণসভায় বক্তারা বলেছেন, পুঁজিবাদি রাজনীতির ভিড়ে দেশের ক্ষণজন্মা বীরদের আমরা ভুলতে বসেছি। স্বাধিকার আন্দোলন ও মুক্তিযুদ্ধের সংগ্রামের অন্যতম দুই দিকপাল মাস্টারদা সূর্য সেন এবং এম এ আজিজের শ্রম, মেধা ও ত্যাগের কথা বাঙালি জাতি সারা জীবন মনে রাখবে।
বক্তারা বলেন, নতুন প্রজন্মদের এ দুই ক্ষণজন্মা পুরুষদের আদর্শে উদ্বুদ্ধ হতে হবে এবং চট্টগ্রামের মৌলিক বিষয়ে যেসব অসমাপ্ত কর্মকাণ্ড আছে তা সমাধানের জন্য চট্টগ্রামের জনগণকে এগিয়ে আসতে হবে। চট্টগ্রাম নাগরিক অধিকার বাস্তবায়ন পরিষদের সভাপতি সাংস্কৃতিক সংগঠক সজল চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক দিদার আশরাফীর সঞ্চালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন সাবেক সাংসদ ও চাসুক ভিপি মাজহারুল হক শাহ চৌধুরী। প্রধান বক্তা ছিলেন চট্টগ্রাম উত্তর জেলা সেক্টরস কমান্ডারস এর সভাপতি ড. মাহমুদ হাসন।
বিশেষ অতিথি ছিলেন মুক্তিযোদ্ধা সংসদ চট্টগ্রাম মহানগর ইউনিট কমান্ডের কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা মোজাফ্ফর আহমদ, উত্তর জেলা জাসদ’র সভাপতি ভানুরঞ্জন চক্রবর্ত্তী, নগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য ও এম এ আজিজের সুযোগ্য পুত্র সাইফুদ্দীন খালেদ বাহার, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আহমদ ছফা।
বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সহসভাপতি সালমা জাহান মিলি, ডা. দুলাল কান্তি চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা এস এম আবু তাহের, ডা. আর কে রুবেল, সাংস্কৃতিক সংগঠক প্রণবরাজ বড়-য়া, কবি আরিফ চৌধুরী, সহ সম্পাদক রিমন মুহুরী, সিনিয়র সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন প্রশান্ত বড়-য়া, সাংগঠনিক সম্পাদক পারভীন আক্তার চৌধুরী, কামাল হোসেন, জাবেদ রকি, দপ্তর সম্পাদক আনিস আহমদ খোকন, সহ দপ্তর সম্পাদক মো. খোকন, প্রচার সম্পাদক হারুনুর রশীদ, মহিলা বিষয়ক সম্পাদক রোজি চৌধুরী, মিলন কান্তি রুদ্র, হ্লেজয় চৌধুরী টিটু, ইব্রাহীম খলিল সবুজ, মুক্তিযোদ্ধা আবদুস সালাম, মুক্তিযোদ্ধা বাদশা মিয়া, কবি সজল দাশ, মুক্তিযোদ্ধা ক্যাপ্টেন আবদুল মতিন প্রমুখ। বিজ্ঞপ্তি

আপনার মন্তব্য লিখুন