ওয়ার্কসপে চবি উপাচার্য

সুযোগ পেলে প্রতিবন্ধীরাও উন্নয়নে ভূমিকা রাখতে পারে

বিজ্ঞপ্তি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, সকল প্রকার সীমাবদ্ধতা অতিক্রম করে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের মৌলিক অধিকার সুনিশ্চিত করণের মাধ্যমে তাদেরও দক্ষ নাগরিক হিসেবে তৈরি করা সম্ভব। সুযোগ পেলে প্রতিবন্ধীরাও দেশের উন্নয়ন অগ্রগতিতে ভূমিকা রাখতে পারে। প্রতিবন্ধী ছাত্র সমাজ, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (ডিসকু)-এর উদ্যোগে এবং ইপসা ও এ কে খান ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় গতকাল বেলা ১১ টায় চবি কেন্দ্রীয় লাইব্রেরী মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত দিনব্যাপি ‘রিডিং উইথআউট সিয়িং’ শীর্ষক দক্ষতা বৃদ্ধি ওয়ার্কসপে প্রধান অতিথির ভাষণে তিনি এসব কথা বলেন।
এতে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন এশিয়া-আফ্রিকা-বুকশেয়ার-এর প্রোগ্রাম ম্যানেজমেন্টের ডিজেবলিটি এক্সপার্ট ড. হুমায়ার মোবেদজ্জি এবং এশিয়া আফ্রিকা, বুকশেয়ার-এর মেম্বারশিপ হেড জয়নাব চিনিকমওয়ালা।
উপাচার্য তাঁর ভাষণে বলেন, প্রতিবন্ধীবান্ধব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হিসেবে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দেশের প্রথম ‘ইনক্লুসিভ ইউনিভার্সিটি’। প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য সর্বপ্রথম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে এক্সেসেবল ই-লানিং সেন্টার প্রতিষ্ঠা করা হয় যেখানে প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীরা আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে পঠন-পাঠনে অধিকতর সুযোগ লাভ করছে।
তিনি আরো বলেন, ভবিষ্যত প্রজন্মের জন্য চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫০ বছরের মাস্টার প্ল্যান তৈরির কাজ দ্রুত এগিয়ে চলছে। যেখানে সাধারণ শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি প্রতিবন্ধী শিক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত আধুনিক মানের একাডেমিক ভবন নির্মাণ করার পরিকল্পনা রয়েছে।
ডিসকু’র সভাপতি মো. উদ্দীনের সভাপতিত্বে এবং এটুআই ন্যাশনাল কনসালটেন্ট ভাস্কর ভট্টাচার্যীর পরিচালনায় ওয়ার্কসপে স্বাগত বক্তব্য রাখেন ডিসকু’র সাধারণ সম্পাদক মো. আব্দুর রাজ্জাক।
অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সদস্য ফয়সাল মো. ইব্রাহীম এবং সাবেক সভাপতি মো. ছুলাইমান বাদশা। ওয়ার্কসপে ডিসকু’র সদস্যবৃন্দ উপসি’ত ছিলেন।