সীমান্ত করিডর দিয়ে গবাদিপশু আসছে মিয়ানমার থেকে

নিজস্ব প্রতিনিধি, উখিয়া

এবার কোরবানির পশু আসছে মিয়ানমার থেকে টেকনাফ উপজেলার শাহপরীর দ্বীপ করিডর দিয়ে। ব্যবসায়ীমহল জানান, এ আমদানি অব্যাহত থাকলে স্থানীয় বাজারগুলোতে চাহিদা মিটিয়ে দেশের বিভিন্ন হাটবাজারে কোরবানির পশুর সংকট হবে না ।
বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের শাহপরী দ্বীপ করিডর হয়ে গবাদিপশু নিয়ে আসার পথে কোনো রকম বাধা সৃষ্টি না হলে এবারের ঈদুল আজহার আগে অন্তত ৩০-৪০ হাজার গবাদিপশু আমদানি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে।
শুল্ক বিভাগ জানায়, মিয়ানমার থেকে চোরাইপথে গবাদিপশু আসা বন্ধ করে ২০০৩ সালে শাহপরীর দ্বীপে এ করিডর চালু করে সরকার। তখন থেকে প্রতিটি গরু-মহিষের জন্য ৫শ টাকা ও ছাগলের জন্য ২শ টাকা করে রাজস্ব আদায় করা হয়। সীমান্তে বিজিবির মাধ্যমে সোনালী ব্যাংকে এ রাজস্ব আদায় হলেও ১৪ বছরেও সরকারি ব্যবস্থাপনায় কোনো অবকাঠামোগত উন্নয়ন গড়ে ওঠেনি। অথচ দেশে গবাদিপশুর চাহিদা মেটাতে এ করিডর গুুরত্বর্পূণ ভূমিকা পালন করে আসছে। শুল্ক কর্তৃপক্ষ আরো জানায়, চলতি আগস্ট মাসের ১ থেকে ৭ তারিখ পর্যন্ত এক হাজার ৪৪৮টি গরু, ৩০৭টি মহিষ আমদানি হয়েছে। জুলাই মাসে ৬ হাজার ৭৭০ গবাদি পশুর মধ্যে ৪ হাজার ৭৪০টি গরু, ২ হাজার ২৯টি মহিষ আমদানি হয়। যার বিপরীতে সরকার ৩৩ লাখ ৮৪ হাজার ৭০০ টাকা রাজস্ব আদায় করতে সক্ষম হয়েছে।