সাতকানিয়ায় স্কুল ক্রীড়ায় পুরস্কার দেয়া হয়নি

নিজস্ব ক্রীড়া প্রতিবেদক

চ্যাম্পিয়ন এবং রানার্স-আপ ট্রফি ছাড়াই গত সোমবার সাতকানিয়া উপজেলায় উপজেলা পর্যায়ের গ্রীষ্মকালীন জাতীয় আন্তঃস্কুল-মাদ্রাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতা শেষ হয়েছে। সাতকানিয়া মডেল হাইস্কুল মাঠে ফুটবলের ফাইনালে করাইয়ানগর বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়কে ১-০ গোলে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হয় সাতকানিয়া মডেল হাইস্কুল। ৫০ স্কুলের অংশগ্রহণে গ্রীষ্মকালীন জাতীয় আন্তঃ স্কুল-মাদ্রাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে উপসি’ত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ মোবারক হোসেন, মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজিম শরীফ, সাতকানিয়া মডেল হাইস্কুল প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, সাতকানিয়া মডেল হাইস্কুল পরিচালনা পর্ষদ সদস্য রকিবুল হক দীপু, আলী আহমদ। খেলা শেষে চ্যাম্পিয়ন, রানার্স-আপ, সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার দেয়ার কথা থাকলেও না পাওয়ায় ক্ষুদ্ধ খেলোয়াড়রা।

ক্রীড়ামোদীরা এমন ঘটনাকে খেলোয়াড়দের নিরুৎসাহিত করবে বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন। পর পর দু’বছর গ্রীষ্মকালীন জাতীয় আন্তঃস্কুল প্রতিযোগিতায় পুরস্কার বিতরন না হওয়ায় আয়োজকদের মধ্যে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তার গাফিলতি, স্বেচ্ছাচারিতাকেই দুষছেন তারা। মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোহাম্মদ আজিম শরীফের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, গ্রীষ্মকালীন জাতীয় আন্তঃ স্কুল-মাদ্রাসা ক্রীড়া প্রতিযোগিতার জন্য সরকারিভাবে কোন বরাদ্দ আসে না। স্কুল সমূহ থেকে চাঁদা উত্তোলন করে খেলা পরিচালনা করা হয়েছে। তহবিলে মাত্র ১ হাজার টাকা জমা রয়েছে।