সময়ের আগেই শিলাবৃষ্টি

নিজস্ব প্রতিবেদক

সময়ের একমাস আগেই ঝরলো শিলাবৃষ্টি। গতকাল দেশের বিভিন্ন এলাকায় হালকা বৃষ্টির সাথে হয়েছে শিলাবৃষ্টিও। কিন’ বছরের এসময়ে সাধারণত এ ধরনের বৃষ্টি হয় না। পূবালী ও পশ্চিমা বাতাসের মিলনের কারণে কখনো কখনো হালকা বৃষ্টি হয়ে থাকে, কিন’ এ ধরনের বর্ষণ দেখা যায় না। তবে এ বৃষ্টির মাধ্যমে বিদায় হতে পারে শীতের আমেজ।
আবহাওয়া অধিদপ্তরের তথ্যমতে, গতকাল ঢাকায় ২৭ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড হয়েছে। ঢাকা বিভাগের বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও রাজশাহী, চট্টগ্রাম ও খুলনায় বৃষ্টি হয়েছে। আর বৃষ্টির সাথে সাথে কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টিও হয়েছে। গতকাল সকালে চট্টগ্রামের হাটহাজারী এলাকায় বৃষ্টিতেও শিলা পড়েছে এবং রাজশাহী এলাকায়ও শিলাবৃষ্টি হয়েছে।
কিন’ বছরের এ সময়ে সাধারণত শিলাবৃষ্টি দেখা যায় না, মার্চের শেষের দিকে এ ধরনের বৃষ্টি হয়ে থাকে। কিন’ এবার তা এগিয়ে এলো কেন জানতে চাইলে আবহাওয়া অধিদপ্তর পতেঙ্গা কার্যালয়ের আবহাওয়াবিদ ফরিদ আহমেদ বলেন, পূবালী ও পশ্চিমা বায়ুর সংঘর্ষের কারণে এ ধরনের বৃষ্টি হয়ে থাকে। তবে এবার এই সংঘর্ষ একমাস আগে চলে আসায় তা হয়েছে। মূলত জলবায়ু পরিবর্তনজনিত কারণে তা হচ্ছে।
একই মত প্রকাশ করে পতেঙ্গা কার্যালয়ের পূর্বাভাস কর্মকর্তা উজ্জ্বল কান্তি পাল বলেন, ‘বৈশ্বিক জলবায়ু পরিবর্তনের ফসল হলো এই বৃষ্টি। এ ধরনের বৃষ্টি আরও কয়েকদিন হতে পারে।’
এ বৃষ্টির পর শীতের আবহ থাকবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন,‘ শীত তো প্রায় চলে গেছে। এ বৃষ্টির পর আর শীতের প্রভাব আর না থাকার সম্ভাবনাই বেশি। আগামী মাস থেকে শুরু হচ্ছে ঘূর্ণিঝড় মৌসুম।’
এদিকে বৃষ্টির কারণে গতকাল দিনভর নগরীর আকাশ মেঘলা ছিল। যেসব এলাকায় বৃষ্টি হয়নি সেসব এলাকায় ঠাণ্ডা বাতাস প্রবাহিত হয়েছে।