সমাবেশে সুজন আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশুন্য করতেই ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা

বিজ্ঞপ্তি

২১ আগস্টের গ্রেনেড হামলার পিছনে বিএনপি এবং রাষ্ট্রীয় মদদ ছিল আজকের রায়ে সেটাই প্রমানিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন। তিনি গতকাল সকাল ১১টায় সিমেন্ট ক্রসিং মোড়ে, দুপুর ১২টায় সিইপিজেড চত্ত্বরে এবং দুপুর সাড়ে বারটায় ফকির হাট চত্ত্বরে চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ ঘোষিত নাশকতার বিরুদ্ধে ৩৬, ৩৭, ৩৯, ৪০ ও ৪১ নম্বর ওয়ার্ডের অবস’ান কর্মসূচি ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখতে গিয়ে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতা কামরুল হাসান ভুলুর সভাপতিত্বে সিমেন্ট ক্রসিং চত্ত্বরের সমাবেশে অন্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন পতেঙ্গা থানা আওয়ামী লীগের আব্দুল হালিম, এম.এন.ইসলাম, হাজী শফিউল আলম, জয়নাল আবেদীন চৌধুরী আজাদ, নূরুল আলম, কমিশনার হাজী মো. আসলাম, শাহাদাত হোসেন, মো. আলী, মো. সেলিম প্রমুখ। ইপিজেড থানা আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক হাজী হারুনুর রশীদ এর সভাপতিত্বে সিইপিজেড চত্ত্বরের সমাবেশে অন্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী সদস্য রোটারিয়ান মো. ইলিয়াছ, মো. আবু তাহের, সুলতান মো. নাছির উদ্দিন, কাউন্সিলর হাজী জিয়াউল হক সুমন, সেলিম আফজল, ফরিদ উদ্দিন মো. বাবর, মো. ইলিয়াছ, আজাদ খান অভি প্রমুখ। ৩৬ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক ইসকান্দর মিয়ার সভাপতিত্বে ফকিরহাট চত্ত্বরের সমাবেশে অন্যদের মধ্যে উপসি’ত ছিলেন হাজী জহুর আহমদ কোম্পানী, আব্দুল আহাদ, হাজী মো. ইলিয়াছ, হোসেন মুরাদ, আব্দুল মান্নান, আবুল কালাম বিএসসি প্রমূখ।
সভার প্রধান অতিথি খোরশেদ আলম সুজন আরো বলেন, মুক্তিযুদ্ধের মধ্য দিয়ে আজকের এই স্বাধীন বাংলাদেশ সৃষ্টি হয়েছে। সে মুক্তিযুদ্ধের নেতৃত্বদানকারী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগকে নেতৃত্বশুন্য করার জন্য এই ভয়াবহ গ্রেনেড হামলা চালানো হয়েছিলো।