হুমায়ুন আজাদ স্মরণে প্রমার প্রযোজনা

‘সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে’

নিজস্ব প্রতিবেদক

আমাদের মন প্রস্তুত, কিন্তু ঘর এখনো প্রস্তুত করে তুলতে পারিনি আমরা। অন্ধকার এখানে এখন সবচেয়ে উজ্জ্বল আলোর নাম। হৃদয়হীনতা এখানে সবচেয়ে বড় মানবিক আবেদন। এখন আমরা এমন এক রাষ্ট্রের মুখোমুখি, যেখানে মানুষের সততা, দক্ষতা, যোগ্যতা সর্বৈব অর্থেই মূল্যহীন। আমরা এমন এক রাষ্ট্র নির্মাণ করে চলেছি, যেখানে দলীয় পরিচয় ছাড়া আর কোনো পরিচয় মানুষের মূল্য বহন করে না। তাই ঘুমিয়ে পড়ার আগে বাজুক বাঁশি, উঠুক বেজে’ -এই উপলব্ধির মুখোমুখি দাঁড় করিয়ে দেন হুমায়ুন আজাদ।
‘সবকিছু নষ্টদের অধিকারে যাবে’ শিরোনামে প্রমা আবৃত্তি সংগঠনের প্রযোজনার মূলকথা এটি। শনিবার সন্ধ্যা ৭টায় বহুমাত্রিক কবি ও প্রাবন্ধিক হুমায়ুন আজাদের ১৩তম প্রয়াণ দিবস উপলক্ষে তারই কবিতা ও জীবনালেখ্য নিয়ে তৈরি এ পূর্ণাঙ্গ প্রযোজনাটির ১৩তম মঞ্চায়ন অনুষ্ঠিত হয় নগরীর থিয়েটার ইনস্টিটিউট চট্টগ্রাম (টিআইসি) মিলনায়তনে। প্রযোজনার গ্রন্থনা ও নির্দেশনায় ছিলেন আবৃত্তিশিল্পী রাশেদ হাসান। প্রযোজনায় আরো অংশগ্রহণ করেন- প্রমার নিয়মিত আবৃত্তিশিল্পী কঙ্কন দাশ, জেরিন মিলি, বিশ্বজিৎ পাল, মোহিত বিশ্বাস, মঞ্জুর মুন্না, সাহেলী তাহের, রুনা চৌধূরী, এটিএম সাইফুর রহমান, নাজমুল আলীম সুমন, রাবেয়া সুলতান, মামুরা মমতাজ দীপা, আচরারুল হক ও পার্থ প্রতীম মহাজন। আলোক প্রক্ষেপণে ছিলেন মামুন; আবহ সংগীতে ছিলেন নিখিলেশ বড়ুয়া ও পরিতোষ দাশ এবং স্লাইড প্রক্ষেপণে ছিলেন আবুল ফয়েজ ও রাজু দাশগুপ্ত।