তারুণ্যের উচ্ছ্বাসের আবৃত্তি কর্মশালার নবীন বরণ

সফলতা পেতে হলে প্রয়োজন দীর্ঘ সাধনা

বাচিক শিল্প চর্চা কেন্দ্র ‘তারুণ্যের উচ্ছ্বাস’ পরিচালিত শুদ্ধ উচ্চারণ ও আবৃত্তি কর্মশালার পঞ্চদশ ব্যাচের উদ্বোধন ও নবীন বরণ অনুষ্ঠান ১১ আগস্ট নগরীর আন্দরকিল্লার সংগঠনের সম্মিলন কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সাধারণ সম্পাদক আবৃত্তিশিল্পী মুজাহিদুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উদ্বোধক ছিলেন জেলা সংস্কৃতি বিষয়ক কর্মকর্তা মোসলেম উদ্দীন শিকদার।
অতিথি ছিলেন সম্মিলিত আবৃত্তি জোট চট্টগ্রামের সহ সভাপতি মিলি চৌধুরী এবং সম্মিলিত আবৃত্তি জোট চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক ফারুক তাহের ।
অনুষ্ঠানে উদ্বোধক বলেন, ‘বাংলাদেশের বিশেষ করে চট্টগ্রামের আবৃত্তি সংগঠনগুলোর নানামুখী গতিশীল কর্মকান্ডের ফলে তরুণদের মাঝে শুদ্ধভাবে কথা বলার একটি ইতিবাচক আগ্রহ তৈরী হচ্ছে। এর পাশাপাশি যে কোন বাচিক শিল্পেরই প্রথম শর্ত হলো শুদ্ধ উচ্চারণ। তাই এ ধরনের কর্মশালা আমাদের জীবনের প্রায়োগিক নানা ক্ষেত্রে খুব গুরুত্বপূর্ণ।’
তিনি আরও বলেন, ‘যেকোন বিষয়ে সফলতা পেতে হলে সে বিষয়ের উপর একটি দীর্ঘ সাধনা প্রয়োজন। তাই যারা আবৃত্তিতে সাফল্য পেতে চান তাদের নিয়মিত চর্চায় থাকতে হবে।’
আবৃত্তিশিল্পী মিলি চৌধুরী বলেন, ‘তারুণ্যের উচ্ছ্বাস দীর্ঘদিন যাবত আবৃত্তি শিল্প নিয়ে নানামুখী কর্মকান্ড পরিচালনার মধ্য দিয়ে আমাদের এ অঞ্চলে আবৃত্তিশিল্পকে সমৃদ্ধ ও গতিশীল করতে বিশেষ অবদান রাখছে।’
নুষ্ঠানে নতুন ব্যাচের শিক্ষার্থীদের হাতে ফুল ও কর্মশালা উপকরণ তুলে দেন অতিথিবৃন্দ। পরবর্তীতে বড়দের ব্যাচে বরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী মিলি চৌধুরী এবং ছোটদের ব্যাচে আবৃত্তিশিল্পী সেজুঁতি দে উদ্বোধনী ক্লাস নেন।
কর্মশালার পরবর্তী ক্লাস আগামী ১৮ আগস্ট বিকাল সাড়ে তিনটায় একই স্থানে অনুষ্ঠিত হবে। এদিন প্রশিক্ষণ দিবেন বাংলাদেশেল জনপ্রিয় আবৃত্তিশিল্পী মাহিদুল ইসলাম।
উল্লেখ্য, তারুণ্যের উচ্ছ্বাস পরিচালিত শুদ্ধ উচ্চারণ, আবৃত্তি, উপস্থাপনা ও সংবাদপাঠ বিষয়ক পাঁচ মাস ব্যাপী অনুষ্ঠিত এ কর্মশালায় দেশবরেণ্য আবৃত্তিশিল্পী, অভিনেতা, কবি, সাংবাদিক ও প্রশিক্ষকবৃন্দ ক্লাস নেবেন। আগ্রহীদের ০১৮১৪-৭৮০০৩২ নম্বরে যোগাযোগের অনুরোধ জানানো হয়েছে। বিজ্ঞপ্তি