মতবিনিময় সভায় চবি উপাচার্য

সংবাদ উপস্থাপনে সাংবাদিকদের আরো সতর্ক হতে হবে

চবি সংবাদদাতা
CU-17-07-17-(1)

‘সাংবাদিকদের সংবাদ উপস’াপনে আরো সতর্কতা অবলম্বন করতে হবে। এ বিশ্ববিদ্যালয় তোমার-আমার; এটাকে বিশ্বের দরবারে তুলে ধরতে সাংবাদিকদের লেখনি শক্তি অতুলনীয় ভূমিকা পালন করে।’
সোমবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় সভায় এ সব কথা বলেন চবি উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী।
এ সময় উপাচার্য আরো বলেন, ‘গত কয়েক দিন ধরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষা ও গবেষণা ইনিস্টিটিউট নিয়ে যে সমস্যা দেখা দিয়েছে সেটা সমাধানের কাজ চলছে। আমি আজ সকালে নিজে গিয়ে দেখে এসেছি। আশা করি তাদের যে অবকাঠামো সমস্যা রয়েছে তা খুব তাড়াতাড়ি সমাধান করা হবে’।
এ সময় উপসি’ত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার, প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী, ডেপুটি রেজিস্ট্রার (তথ্য) ফরহাদ হোসেন খান।
‘ফিজিব্যাল স্টাডির’ বিষয়ে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, ‘বিভাগ খোলার আগে কোনো ফিজিব্যাল স্টাডি করেনি তৎকালীন প্রশাসন। কলেজের শিক্ষকদের আই ই আর -এ নিয়োগ দেয়া হলেও, চুক্তি ছিল তারা কলেজেও ক্লাস নিবেন।
এ সময় তিনি বলেন, ব্যক্তিকে কেন্দ্র করে প্রতিষ্ঠান হতে পারে না। ভুল জিইয়ে রাখা অপরাধ। তারপরেও সমস্যাগুলো ভুলগুলো সাদরে গ্রহণ করেছি। ধীরে ধীরে সমাধান করা হচ্ছে এসব সমস্যা।
মোরার আঘাতে বিএনসিসির অফিস নষ্ট হয়ে যাওয়ায় পুরাতন আইন ভবনের নীচ তলা বরাদ্দ দেয়া হয়। সেখানে আগে আই ই আর কে উপরের তলা ব্যবহার করতে বলা হয়। তবে বর্তমানে সাময়িকভাবে বিএনসিসিকে নীচ তলার দুটো কক্ষ ব্যবহার করতে এবং অন্য দুটো কক্ষ সেমিনার রুম হিসেবে আই ই আরকে ব্যবহার করার নির্দেশ দেয়া হয়েছে বলেও উল্লেখ করেন চবি উপাচার্য।
মতবিনিময় সভায় সাংবাদিকদের নীতি নৈতিকতা মেনে সংবাদ পরিবেশন করার পরামর্শ দেন প্রক্টর আলী আজগর চৌধুরী। ‘সাংবাদিকরা একদিকে শিক্ষার্থী, অন্যদিকে সাংবাদিক। তারা সত্য কথাটা তুলে ধরবে এটাই আমাদের প্রত্যাশা। প্রক্টর আরো বলেন, ‘ভুলে গেলে চলবে না একজন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ডিসিপ্লিন মেনে ছাত্র। সাংবাদিকতা সাংবাদিকতার জায়গায়। আমরা এটাতে হস্তক্ষেপ করতে চাই না। গত দু’বছরে কোন রিপোর্টারকে কোনো নিউজ করতে নিষেধ করিনি। তোমরা স্বাধীন। তবে এটির সুবিধা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়কে অসি’তিশীল বা কারো এজেন্ডা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হলে তাহলে ছাড় দেয়া হবে না।’