শ্বাসরোধে বৃদ্ধাকে খুন

গ্রেফতার দুই মাদকসেবী

নিজস্ব প্রতিবেদক
monju Shen_ murder arrestted (1)

নগরে ৭০ বছরের বৃদ্ধা মঞ্জু সেনকে খুন করে স্বর্ণালংকার লুট করার ঘটনায় দুই মাদকসেবীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গত শনিবার রাতে নগরীর একাধিক জায়গায় অভিযান চালিয়ে আব্বাস ও রুবেল নামে দুই যুবককে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পর পুলিশ জানতে পারে-মাদকের টাকা জোগাড় করতে শ্বাসরোধে হত্যার পর ওই বৃদ্ধার কানের দুল, আংটি ও মোবাইল সেট লুট করে পালিয়ে যায় তারা।
সদরঘাট থানার ওসি নেজাম উদ্দিন জানান, গত শুক্রবার ভোরে ফিরিঙ্গিবাজার শিববাড়ি এলাকার বাসা থেকে প্রাতঃভ্রমণে বের হন মঞ্জু সেন। সেদিন দুপুরেও বাসায় না ফেরায় তার ছেলে রতন সেন কোতোয়ালি থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন। পরের দিন শনিবার বেলা ২টার দিকে অভয়মিত্র ঘাট (নেভাল-২) এলাকায় মঞ্জু সেনের মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। গ্রেফতারের পর আব্বাস ও রুবেল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে মঞ্জু সেনকে শ্বাসরোধে হত্যা করে তার কানের দুল, আংটি ও মোবাইল লুট করে নেওয়ার কথা স্বীকার করেছে।
পুলিশ কর্মকর্তাদের আব্বাস ও রুবেল জানিয়েছে- শুক্রবার ভোর ৬টার দিকে মেরিন ড্রাইভ সড়ক এলাকায় অবস’ান করছিল তারা। এসময় তাদের পাশে ফুল তোলার জন্য যান মঞ্জু সেন। হাতে মোবাইল, কানে সোনার দুল ও আংটি দেখে মঞ্জুকে টেনে প্যাসিফিক গ্রুপের পরিত্যক্ত অফিসের ভেতর ঢুকিয়ে ফেলে। এসময় চিৎকার করলে মঞ্জু সেনের গলা টিপে ধরে তারা। এক পর্যায়ে নিথর হয়ে গেলে মঞ্জুর লাশ পাশের জঙ্গলে ফেলে পালিয়ে যায় তারা।
এদিকে বৃদ্ধা মঞ্জু সেন হত্যার ঘটনায় গ্রেফতার দুই আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। গতকাল মহানগর হাকিম শফি উদ্দিনের আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় তারা এ জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে আসামিরা খুনের বিষয়টি স্বীকার করেন।
গ্রেফতার আসামিরা হলেন- ফিরিঙ্গিবাজার এলাকার মফিজুল ইসলামের ছেলে মো. রুবেল (২২) ও আনোয়ারা উপজেলার মোহসেন আউলিয়া এলাকার মো. নুরুচ্ছফার ছেলে মো. আব্বাস (২৫)। নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী সুপ্রভাতকে বলেন, বৃদ্ধাকে হত্যার ঘটনায় দুই আসামিকে গ্রেফতার করে পুলিশ আদালতে নিয়ে আসেন। হত্যার ঘটনাটি স্বীকার করে উভয় আসামি আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন।